কলকাতা:আলোর উৎসব দীপাবলিতে সব আঁধার ধুয়ে মুছে আলোকের ঝর্ণাধারায় সেজে উঠতে চলেছে বাংলার প্রাণ-মন। আর ভাষা, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে ঐক্যের বার্তা দিয়ে শুক্রবার শহরে বেশ কয়েকটি কালীপুজোর উদ্বোধন করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷

এর আগে বৃহস্পতিবার উত্তরবঙ্গে থাকাকালীন মুখ্যমন্ত্রী এবার প্রথম কালীপুজোর উদ্বোধন সেরে ফেলেছেন। গতকাল শিলিগুড়ির পর আজ কলকাতায় এসে গিরীশ পার্কের ফাইভ স্টার স্পোর্টিং ক্লাব, এস. এন. ব্যানার্জী রোডে জানবাজার সম্মিলিত কালী পূজা সমিতি, শেক্সপিয়ার সরণীর ইউথ ফ্রেন্ড এবং কালীঘাটের হরিশ মুখার্জী রোডে ভেনাস ক্লাব আয়োজিত কালী পুজোর উদ্বোধনের করলেন মমতা৷

প্রাকৃতিক দুর্যোগের মধ্যেও মুখ্যমন্ত্রীকে দেখতে রাস্তায় মানুষের আগ্রহ ছিল চোখে পড়ার মতো। এদিন প্রদীপ জ্বালিয়ে প্রতিমার আবরণ উন্মোচনের পর মমতা রাজ্যবাসীকে কালীপুজো, দীপাবলি ও ছটপুজোর শুভেচ্ছাও জানান। ওই সব মিশ্র এলাকার কথা মাথায় রেখে কিছুটা হিন্দিতেও ভাষণ দেন এদিন তিনি৷

রবিবার কালীপুজো।কিন্তু তার আগে উত্তরবঙ্গে সরকারি কাজে কয়েকদিন ব্যস্ত থাকার ফলে এবার তাঁর পুজো উদ্বোধনে চাহিদা থাকলেও তিনি সেগুলি ছাঁটাই করেছেন। এদিন পুজো উদ্বোধনে গিয়ে সরাসরি রাজনীতির প্রসঙ্গে না আনলেও তিনি এদিন জাতি, ধর্ম নির্বিশেষে ঐক্যের বার্তা দেন। তবে দেশে অর্থনৈতিক মন্দার পরিস্থিতির কথাও তোলেন বিশেষত কর্মসংস্থান নিয়েও সমস্যার কথা বলেন৷ পুজোর উদ্বোধনে এসে তিনি মনে করিয়ে দেন, পুজোর পাশাপাশি বড়দিনে উৎসবে বা ঈদেও অংশ নেন তিনি ৷