কলকাতা: নিজামুদ্দিনের ঘটনার পর থেকেই লুক আউট নোটিশ জারি করেছে তবলিগি জামাতের সদস্যদের বিরুদ্ধে তা সত্ত্বেও বাংলাদেশের উদ্দেশ্যে রওনা দিচ্ছেন তাঁরা, এসব দেখেও চোখবন্ধ করে রয়েছেন পশ্চিমবঙ্গ সরকার, এমনটাই দোষারোপ করেছে রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়।

দিল্লির নিজামুদ্দিন মার্কাজে তবলিগি জামাতের ধর্মীয় অনুষ্ঠানের জন্য ভারতের ভিসা আইনের নিয়ম ভেঙেছে। রাজ্যপাল ধনকড় জানিয়েছেন, ১৯ জন তবলিগি জামাতের সদস্য কলকাতা থেকে বাসে করে হরিদাসপুর চেক-পোস্ট দিয়ে বাংলাদেশের উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছেন।

সীমান্ত অঞ্চলে কর্তৃপক্ষ লক্ষ্য করেছেন, তাঁদের বিরুদ্ধে লুকআউট নোটিশ জারি হওয়ায় সেই অনুযায়ী তাঁদের আটক করা হয়।

ধনকড় আরও জানিয়েছেন, ওই তবলিগি জামাতিরদের কলকাতার একটি কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে রাখা হয়েছে। দিল্লি পুলিশের ক্রাইম ব্রাঞ্চের আগামী সাতদিনের মধ্যে আসার কথা ছিল। এতকিছুর পরেও তবলিগি জামাতিরা বাংলাদেশের উদ্দেশে রওনা হয়েছেন তবে সীমান্তে ঘটনাচক্রে তাঁদের আটকানো হয়।

বাংলার সরকারকে ইতিমধ্যেই দোষারোপ করা হয়েছে, কেন্দ্রের সিদ্ধান্তকে অমান্য করার অভিযোগ আনা হয়েছে এবং তবলিগিদের দোষ ঢাকার চেষ্টা করছে। যদিও তৃণমূলের তরফে এমন অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে। জানানো হয়েছে সব নিয়ম মেনে চলা হচ্ছে।

করোনা ভাইরাসের হটস্পট হিসেবে চিহ্নিত হয়েছে নিজামুদ্দিন মার্কাজ। তবলিগি জামাতের অনুষ্ঠানের পর থেকেই দেশে হু-হু করে বেড়ে গিয়েছে সংক্রমণ। ভাঙা হয়েছে ফরেন ফান্ডিং আইন, তাই এবার অর্গানাইজারদের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করেছে সিবিআই (CBI)।

সূত্রের খবর, অবৈধভাবে টাকা লেনদেনের মাধ্যমেই মার্চ মাসে নিজামুদ্দিন মার্কাজে তবলিগি জামাতের এই অনুষ্ঠান হয়েছিল। যদিও তাঁদের তরফে কোনও বিদেশি অনুদানের কথা উল্লেখ করা হয়নি।

নিজামুদ্দিন মার্কাজে তবলিগি জামাতের ধর্মীয় অনুষ্ঠানের ঘটনার সঙ্গে যুক্ত থাকার জন্য চার্জশিট ফাইল করা হয়েছে ৮৩ জন বিদেশির বিরুদ্ধে। মোট ২০টি চার্জশিট পেশ করা হবে বলেই জানা গিয়েছে।

মে মাসের শুরুর দিকে, দিল্লি পুলিশের ক্রাইম ব্রাঞ্চ তবলিগি জামাতের সঙ্গে যুক্ত ৭০০ বিদেশির কাগজপত্র বাজেয়াপ্ত করেছে, সেখানে ছিল পাসপোর্টও। সব তথ্যের ভিত্তিতে জানা গিয়েছে, এই সকল তবলিগি জামাত সদস্যরা মার্চ মাসে নিজামুদ্দিন মার্কাজের ধর্মীয় অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেছিলেন।

বিভিন্ন রাজ্য থেকে প্রায় ১৫০০০ বেশি করোনা সংক্রমণ সামনে এসেছে নিজামুদ্দিনের তবলিগি জামাতের অনুষ্ঠানের পরেই, যা একধাক্কায় অনেকটা বাড়িয়ে দিয়েছে দেশের স্বাস্থ্য সংকট।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।