কলকাতা: বর্ষীয়ান সিপিএম নেতা শ্যামল চক্রবর্তীর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ এবং বললেন,তাঁর মৃত্যুতে রাজনৈতিক জগতের ক্ষতি হল৷

বৃহস্পতিবার বেলা ১.৪৫ মিনিটে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন সিপিএম নেতা। শ্যামল চক্রবর্তীর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি জানিয়েছেন, ‘রাজ্যের প্রাক্তন পরিবহন মন্ত্রী সিপিআই (এম) নেতা শ্যামল চক্রবর্তীর মৃত্যুতে আমি গভীর শোক প্রকাশ করছি৷ তিনি আজ কলকাতায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন৷ বয়স হয়েছিল ৭৮ বছর৷ শ্যামলবাবু সিটু-র রাজ্য সভাপতির দায়িত্ব করেছিলেন৷ রাজ্যসভার সাংসদও নির্বাচিত হন৷ এছাড়া তিনি দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ছিলেন৷ তাঁর মৃত্যুতে রাজনৈতিক জগতের ক্ষতি হল৷ আমি শ্যামল চক্রবর্তীর পরিবার- পরিজন ও অনুরাগীদের আন্তরিক সমবেদনা জানাচ্ছি৷

বৃহস্পতিবার বেলা ১.৪৫ মিনিটে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন বর্ষীয়ান সিপিএম নেতা শ্যামল চক্রবর্তী৷ কোভিড আক্রান্ত হয়ে বাইপাসের ধারে একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি৷ ১ অগস্ট থেকে ভেন্টিলেশনে ছিলেন প্রবীণ নেতা৷ ৩০ জুলাই থেকে পিয়ারলেস হাসপাতালে ভর্তি হন৷

কিডনির সমস্যার কারণে ডায়ালিসিস চলছিল শ্যামল চক্রবর্তী।৷ আজ সকালের পর থেকে দু’বার হৃদরোগে আক্রান্ত হন তিনি। এর পর দুপুরে মারা যান বর্ষীয়ান সিপিএম নেতা৷ যেহেতু তাঁর কোভিড পজিটিভ ছিলো, তাই প্রোটোকল মেনেই তাঁর শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে বলে সিপিএম সূত্রে জানানো হয়েছে৷

সিপিআই (এম) রাজ‍্য সম্পাদক সূর্য মিশ্র জানিয়েছেন, আমাদের পার্টির প্রবীণ নেতা কমরেড শ্যামল চক্রবর্তীর বেলা দুটো নাগাদ জীবনাবসান হয়েছে। আজ দুপুরের আগে ও পরে পরপর দুবার ওঁর হার্ট অ্যাটাক হয়। প্রথমবার কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আনার পর আর একটা অ্যাটাক সব শেষ হয়ে যায়।

যেহেতু উনি কোভিড পজিটিভ ছিলেন সেই কারণে ওঁর শেষ যাত্রার কর্মসূচি পরে জানানো হবে। আমাদের সমস্ত পার্টি অফিসে পার্টি পতাকা অর্ধনমিত থাকবে।

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা