স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি হওয়ার পর সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কে ফোনে শুভেচ্ছা জানান বিজেপি নেতা মুকুল রায়৷ এবার তাঁকে ফোন করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ বুধবার নবান্নে মন্ত্রীসভার বৈঠকের পর নব নির্বাচিত বিসিসিআই সভাপতিকে সংবর্ধনা দেওয়ার প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “সৌরভ ঘরের ছেলে। ওর সঙ্গে কথা হয়েছে।”

এদিন মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, নোবেলজয়ী অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায় ও বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়, বাংলার এই দুই কৃতী সন্তানকে রাজ্য সরকারের তরফে সংবর্ধনা দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে। তবে কখন, কোথায়, কীভাবে সংবর্ধনা দেওয়া হবে সেই সম্পর্কে অবশ্য স্পষ্ট করে তিনি কিছু জানাননি৷

গত রবিবার বোর্ডের নাটকীয় ভাবে বিসিসিআই-এর প্রেসিডেন্ট হন ‘দাদা’। প্রথমে ব্রিজেশ প্য়াটেলের নাম ঠিক হলেও পরে জানা যায় সৌরভই বোর্ডের প্রেসিডেন্ট পদে মনোনয়ন জমা দিতে চলেছেন। তারপরই মুখ্যমন্ত্রীর পক্ষ থেকে টুইট-বার্তায় প্রশংসা ও অভিনন্দনে ভরিয়ে দেওয়া হল সদ্য় মনোনীত বোর্ড প্রেসিডেন্টকে।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সোমবার সকালেই সৌরভকে টুইটে লেখেন, “বোর্ড প্রেসিডেন্ট পদে সর্বসম্মত ভাবে নির্বাচিত হওয়ার জন্য সৌরভকে অভিনন্দন। অজস্র শুভেচ্ছা রইল। তুমি ভারত ও বাংলাকে গর্বিত করেছো। সিএবি প্রেসিডেন্ট হিসেবেও তোমার কাজে গর্বিত। একটা দুর্দান্ত ইনিংসের অপেক্ষায় থাকলাম।” তবে টু্ইট শুভেচ্ছে জানালেও সেদিন ফোন করেননি৷ উল্লেখ্য, রাজ্যের ক্রীড়া জগতের অতীত বলছে, জগমোহন ডালমিয়া মারা যাওয়ার পর সিএবি প্রেসিডেন্ট পদে সৌরভকে নিয়ে আসে মুখ্য়মন্ত্রী। সেই সময় নানা বিপত্তির মুখে পরলেও সৌরভের পাশে দাঁড়ান মমতা।

একধাপ এগিয়ে সৌরভকে ফুল-মিষ্টি পাঠান মুকুল রায়৷ পরে সংবাদমাধ্যকে তিনি বলেন, “সৌরভের সঙ্গে ফোনে কথা হয়েছে৷ ইতিমধ্যেই ওর বাড়িতে ফুল মিষ্টি পাঠিয়ে দিয়েছি৷ সৌরভ যেমন ক্রিকেটার হিসেবে দক্ষ,তেমনি প্রশাসক হিসেবেও দক্ষ৷ তাঁর হাত ধরে আন্তজার্তিক ক্রিকেট দুনিয়া আগামী দিন ভারতবর্ষে ক্রিকেট বোর্ড আবার দখল নেবে৷ এবং ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি হিসেবে সৌরভ সফল হবেই৷”