স্টাফ রিপোর্টার, জলপাইগুড়ি: প্রায় আট মাস পর উত্তরবঙ্গে প্রশাসনিক বৈঠকে বসছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।আজ, মঙ্গলবার তিনি বৈঠক করবেন জলপাইগুড়ি ও আলিপুরদুয়ার জেলা প্রশাসনের সঙ্গে। উত্তরকন্যাতে হবে এই বৈঠক। প্রশাসন ও পুলিশকর্তারা ছাড়াও মহকুমা ও ব্লক স্তরের আধিকারিকরাও বৈঠকে ডাক পেতে পারেন। প্রয়োজনে ডাকা হতে পারে বিধায়কদেরও।

জেলা প্রশাসন সূত্রে খবর, মুখ‍্যমন্ত্রীর উত্তর‌বঙ্গ সফরের মধ‍্য দিয়ে স্বাস্থ্য বিষয়ক বড় কোনও ঘোষণা হতে পারে জলপাইগুড়ি‌তে। সোমবার জলপাইগুড়ির সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে‌র পরিকাঠামো খতিয়ে দেখেন জলপাইগুড়ি‌র জেলাশাসক সহ স্বাস্থ্য দফতরের আধিকারিক‌রা।

প্রশাসন সূত্রে খবর, বিশাল পরিকাঠামো নিয়ে জলপাইগুড়ি‌তে গড়ে তোলার প্রস্তাব রয়েছে ভাইরাস রিসার্চ অ্যাণ্ড ডায়াগন‍স্টিক ল‍্যাবরেটরি (ভিআরডিএল)। এই ল‍্যাব গড়ে তোলা হলে করোনা ভাইরাস, এনসেফেলাইটিস ও ডেঙ্গু সহ বিভিন্ন মহামারী রোগের জীবাণুর পরীক্ষা করা যাবে এখানে।

এছাড়াও, বিভিন্ন সরকারি প্রকল্পের হাল বা অগ্রগতি কোন জেলা কেমন, এই সফরগুলিতে সে সব খতিয়ে দেখবেন মমতা। কোনও প্রকল্প যদি ঝুলে থাকে, তা হলে কেন রয়েছে, সে বিষয়ে খোঁজখবর নেবেন। আটকে থাকা বিভিন্ন প্রকল্পের কাজ দ্রুত শেষ করার বন্দোবস্তও এই সব বৈঠক থেকেই তিনি করতে চান।

সোমবার দুপুরে বাগডোগরার পৌঁছন মুখ্যমন্ত্রী। বাগডোগরা বিমানবন্দর থেকে বেরিয়ে সোজা চলে যান শিলিগুড়ির উত্তরকন্যায়। নবান্নে সূত্রে যানা গিয়েছে, এই দফার সফরে ৫টি জেলার প্রশাসনের সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী বৈঠক করবেন। বুধবার দার্জিলিং, কালিম্পং ও কোচবিহার জেলার প্রশাসনের বৈঠকে বসবেন তিনি।

করোনা পরিস্থিতির আগে মালদহ, মুর্শিদাবাদ, রায়গঞ্জ, বালুরঘাট সফর করেন মুখ্যমন্ত্রী। তারপর আর কোনও জেলা সফর করেননি তিনি। যদিও নবান্ন থেকে প্রতিটি জেলার বিভিন্ন অবস্থা নিয়ে তিনি খোঁজ নিয়েছেন। তিনি নির্দেশ দিয়েছিলেন, জেলাশাসকরা যেন জরুরি বৈঠক সেরে প্রয়োজনীয় বিষয়ে হস্তক্ষেপ করেন।

মুখ্যমন্ত্রী আগেই জানিয়েছিলেন, সেপ্টেম্বর মাসের তৃতীয় সপ্তাহ থেকে তিনি ফের জেলা সফর শুরু করবেন। মুখ্যমন্ত্রীর সেই সফর শুরু হল উত্তরবঙ্গ দিয়ে। গত সপ্তাহেই তার এই সফরে আসার কথা ছিল। আবহাওয়া জনিত কারণে তিনি এই সফর বাতিল করেন। নবান্ন সূত্রে জানা গিয়েছে, এবার একের পর এক জেলায় মুখ্যমন্ত্রী প্রশাসনিক সফর করবেন বলে। নভেম্বরের মধ্যেই তিনি সব জেলায় প্রশাসনিক বৈঠক সেরে নিতে চাইছেন।

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।