কলকাতা: জাগো বাংলা পত্রিকার নাম জড়িয়েছে সারদাকাণ্ডে। সম্প্রতি জাগো বাংলায় টাকাপয়সা লেনদেনের ব্যাপারে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় তৃণমূলের মুখপাত্র ডেরেক ও ব্রায়ানকে। এবার জাগো বাংলা প্রসঙ্গে মুখ খুললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

শনিবার নজরুল মঞ্চে জাগো বাংলার উৎসব সংখ্যা প্রকাশে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “মাত্র একটা না দুটো বিজ্ঞাপন নিয়েছে, সেই জন্য রোজ জাগো বাংলাকে বিব্রত করা হচ্ছে।” এদিন সিপিএম-এর সংবাদপত্র গণশক্তি নিয়েও তিনি কথা বলেন।

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, গণশক্তিতে সরকারি বিজ্ঞাপন চলত। কিন্তু আমি গর্ব করে বলতে পারি, গত ৮ বছরে জাগো বাংলায় কোনও সরকারি বিজ্ঞাপন দিতে দিইনি। আদর্শ মেনে চলি একটা। কোথায় একটা না দুটো বিজ্ঞাপন নিয়েছি তা নিয়ে রোজ বিব্রত করা হচ্ছে।

এছাড়াও জাগো বাংলা নিয়ে আরও বলেন মমতা, বিরোধী থাকাকালীন আমি আর পার্থদা জাগো বাংলা শুরু করেছিলাম। এখানে সবাই বিনা পয়সায় নিজের মতো করে লেখেন। অনেকেই বলেন জাগো বাংলা পত্রিকাটি ভাল। বিরোধী দলের মতো কুৎসা করে না। দেখলে ভক্তি হয়।

কিন্তু জানা যাচ্ছে, সারদার বেশ কিছু টাকা জাগো বাংলার অ্যাকাউন্টে গিয়েছে। সেই বিষয়ে সমস্ত নথিপত্র ডেরেক ও ব্রায়েনকে জমা দিতে বলা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, এদিন জাগো বাংলার উৎসব সংখ্যা উদ্বোধনে ছাত্রছাত্রীদের জাগো বাংলা পত্রিকা পড়ার অনুরোধ করেন মমতা। তিনি বলেন, বাংলাকে জাগাতে শেখান, জাগতে শিখুন। সেজন্য সবাইকে জাগো বাংলা পড়তে হবে এবং পড়াতে হবে। এখানে অনেক ভাল লেখা থাকে। এই লেখা পড়লে অনেক গঠনমূলক চিন্তাভাবনার অবকাশ পাবেন সকলে। নেতিবাচক চিন্তা ভেঙে তৈরি হবে ইতিবাচক চিন্তা ভাবনা।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ