স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: নির্বাচন পরবর্তী সন্ত্রাসের ঘটনার ফলে খুন হওয়া তৃণমূল কর্মীদের নাম ঠিকানা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের থেকে চাইছেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়৷ মুকুলের চ্যালেঞ্জ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় খুন হওয়া তৃণমূল কর্মীদের সম্পূর্ণ বিবরণ দিতে পারলে দিক৷

পাশাপাশি মুকুলের দাবি, নির্বাচন পরবর্তী সন্ত্রাসের ঘটনার ফলে ১৪ জন বিজেপি কর্মী খুন হয়েছে৷ বিজেপি কর্মীদের নাম উল্লেখ করে মুকুল বুধবার বলেন, এই প্রতিটিই রাজনৈতিক খুন৷ নাম ঠিকানা দিয়ে দেব৷ কিন্তু তৃণমূল কর্মীদের নাম ঠিকানা দিক মমতা৷ মমতা সন্ত্রাস নিয়ে মিথ্যা অভিযোগ করছে৷

আরও পড়ুন : বিলাসবহুল গাড়ি নয়, বাসেই নিত্যদিন যাতায়াত রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী তথা বিধায়কের

বুধবার বিধানসভায় বিজেপিকে রুখতে একজোট হয়ে লড়তে হবে, ডাক দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা। মুখ্যমন্ত্রীর এই বক্তব্যের পরই মুকুলের প্রতিক্রিয়া, উনি তো মেনেই নিলেন, বাংলায় বিজেপি সর্ববৃহৎ দল৷ তৃণমূল ক্ষয়িষ্ণু শক্তি৷

মুকুলের মতেস কাটমানি নিয়ে আন্দোলন বিজেপি করছে না৷ করছে মানুষ৷ জনতা রাস্তায় নেমে এই আন্দোলন করছে৷ মুকুলের বক্তব্য, ৭৫ শতাংশ কাটমানি ‘পার্টি’ অর্থাৎ তৃণমূল কংগ্রেসের সঙ্গে রয়েছে৷ পার্টির প্রেসিডেন্ট মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ তবে উনি বলুন এই ৭৫ শতাংশ টাকা উনি কীভাবে ফেরত দেবেন৷