নিউজ ডেস্ক, কলকাতা: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে দেখা করতে মঙ্গলবারই দিল্লি রওনা দিয়েছেন রাজ্যের মুখ্য়মন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়৷ আর এক আশ্চর্য সমাপতনে সেই প্রধানমন্ত্রীর স্ত্রীর সঙ্গেই দেখা হয়ে গেল মুখ্য়মন্ত্রীর৷ হাসিমুখে একে অপরকে স্বাগত জানালেন তাঁরা৷ আর সেই ছবি ছড়িয়ে পড়ল সংবাদমাধ্য়মে৷

শুধু সৌজন্য বিনিময়ই নয়, যশোদাবেনকে একটি শাড়িও উপহার দেন মুখ্য়মন্ত্রী৷ কলকাতা বিমানবন্দরের সেই সাক্ষাত লেন্সবন্দি করেন উপস্থিত সাংবাদিকরা৷

সোমবারই রাজ্য়ে আসেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর স্ত্রী যশোদাবেন৷ জন্মদিনের ঠিক আগে, সোমবার মোদীর নামে আসানসোলের কল্যাণেশ্বরী মন্দিরে গিয়ে গোপনে পুজো দেন তাঁর স্ত্রী৷ তবে তিনি কখন পুজো দেন, সে সব ঘুণাক্ষরেও টের পাননি রাজ্য় বিজেপি নেতৃত্ব।

আরও পড়ুন : ফেঁসে যাওয়ার ভয়েই মোদীর কাছে আত্মসমর্পন করলেন দিদি, কটাক্ষ অধীরের

সোমবার সকালে ঝাড়খণ্ডের ধানবাদে একটি সম্মেলনে আসেন তিনি। সেখান থেকে কাতরাশে গিয়ে একটি রাম মন্দিরে প্রথমে পুজো দেন যশোদাবেন। তার পরে সেখান থেকে মাইথন হয়ে কল্যাণেশ্বরী মন্দিরে পৌঁছন যশোদাবেন। অত্যন্ত গোপনীয়তা বজায় রেখেই তিনি পৌঁছে যান মন্দিরে। সঙ্গে ছিলেন যশোদাবেনের ভাই ও ভাইয়ের স্ত্রী। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন থেকে জানা গিয়েছে, তিনি নিজের ও মোদীর নামে পুজো দিয়েছেন।

যশোদাবেন আসবেন বলে, মন্দিরে নিরাপত্তা ছিল জোরদার। নির্দেশ মতোই মন্দিরেও গোপনীয়তা বজায় রাখা হয়। জানিয়েছে মন্দির কর্তৃপক্ষই। যশোদাবেন যে আসানসোলে আসবেন সেই খবর জেলা সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়র কাছেও ছিল না। মন্দির থেকে তিনি যখন বেরোন, তখন তাঁকে বিজেপির কয়েকজন দেখতে পান এবং মোদীর নামে জয়ধ্বনি দিতে থাকেন। তবে এই প্রথম না। এর আগে ভোটের ফলপ্রকাশের দিন যশোদাবেনকে মোদীর জন্য উপবাস করতে দেখা গিয়েছে।