স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: ইস্ট ওয়েস্ট মেট্রো প্রকল্পের উদ্বোধনে আমন্ত্রণ না পেয়ে দুঃখপ্রকাশ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুক্রবার রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়ের বাজেট ভাষনের উপর বক্তৃতা করতে গিয়ে আক্ষেপ প্রকাশ করেন তিনি। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “আমি রেলমন্ত্রী থাকাকালীন অনেক কষ্ট করে অনেকগুলি মেট্রো প্রকল্প বাংলার জন্য এনেছিলাম। যার জন্য আমাকে অনেক চোখের জল ফেলতে হয়েছিল।”

এরপরই তিনি বলেন, “এই তো একটা ছোট পরিসরে মেট্রো প্রকল্পের উদ্বোধন হয়ে গেল। কিন্তু, আমাকে জানানোর প্রয়োজন বোধ করল না।” সঙ্গে তাঁর ছোট্ট প্রতিক্রিয়া, “ওদের ব্যাপার ওরা কী করবে।”

প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবার সল্টলেকে ইস্ট ওয়েস্ট মেট্রো প্রকল্পের উদ্বোধন করলেন রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল। তাতে মুখ্যমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ না জানানো হলেও, আমন্ত্রণ পাঠানো হয় দমকল মন্ত্রী সুজিত রায়, বারাসতের সাংসদ কাকলি ঘোষ দস্তিদার ও বিধাননগরের মেয়র কৃষ্ণা চক্রবর্তী। মুখ্যমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ না জানানোয় উদ্বোধনী অনুষ্ঠান বয়কট করেছেন তাঁরা।

তবে রাজ্যের অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছে রেল। তাদের দাবি, প্রথমে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আমন্ত্রণ জানিয়ে চিঠি পাঠানো হয়েছে। এরপর বৃহস্পতিবার নবান্নে যান মেট্রোর এক আধিকারিক। নিজে সশরীরে গিয়ে ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানান তিনি। মুখ্যমন্ত্রীর সচিব আমন্ত্রণের চিঠি প্রাপ্তির কথা স্বীকার করেছেন বলেও দাবি করেছে মেট্রো কর্তৃপক্ষ।

তবে শাসক দল ও রাজ্য সরকারের এই অভিযোগকে আমল দিতে চাইছে না বিজেপি নেতারা৷ বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, “রেলমন্ত্রী থাকার সময় বাংলার কোনও প্রকল্পের উদ্বোধনে তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যকে আমন্ত্রণ করেননি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ইট মারলে পাটকেল খেতেই হবে।” তাঁর কথায়, “ওনাকে না ডাকা হোক। ওনার প্রতিনিধিদের তো ডাকা হয়েছিল।” বিজেপি নেতা অনুপম হাজরা বলেন, “উনি (পড়ুন মুখ্যমন্ত্রী) রাজ্যপালকে ডাকেন না তাই আমরা ওনাকে ডাকিনি৷”