নয়াদিল্লি: ২৩ মে দেশজুড়ে উঠবে গেরুয়া ঝড়৷ বিভিন্ন বুথফেরত সমীক্ষায় ইঙ্গিত দেশের চৌকিদার হিসাবে আবারও ক্ষমতায় আসছেন মোদী৷ নিঃসন্দেহে এই সমীক্ষা বিরোধী ঐক্যে বড় ধাক্কা৷ জম্মু কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ওমর আবদুল্লা তো বলেই দিয়েছেন, সব বুথফেরত সমীক্ষা ভুল হতে পারে না৷ টিভি বন্ধ করে বসে থাকতে হবে৷ এই বুথ ফেরত সমীক্ষাকে হাতিয়ার করে বিরোধী জোটকে উপহাস করলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী গিরিরাজ সিং৷ তাঁর সরস মন্তব্য, সমীক্ষা দেখে বিরোধীরা ‘পলিটিক্যাল আইসিইউ’তে চলে গিয়েছে৷

সোমবার সকাল সকাল একটি ট্যুইট করেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী৷ লেখেন, বুথফেরত সমীক্ষা দেখে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, চন্দ্রবাবু নাইডু সহ সব বিরোধীরা রাজনৈতিকভাবে আইসিইউতে চলে গিয়েছে৷ ২৩ মে’র পর তাদের জনগণের কাছে প্রায়শ্চিত্ত করতে হবে৷ যাতে তাদের মোক্ষ প্রাপ্তি হয়৷ বুথ ফেরত সমীক্ষার সঙ্গে ফলাফল মিলে গেলে ‘অব কি বার ৩০০ পার’ হতে চলেছে৷ কারণ অধিকাংশ সমীক্ষায় এনডিএ জোটকে ৩০০র অধিক আসন দেওয়া হয়েছে৷ এই ফল যে বিরোধীরা সহজে মেনে নেবে না তা বিলক্ষণ জানেন গিরিরাজ সিং৷ আগে থেকেই সাবধান করে দেন যে বিরোধীরা এই ফলের জন্য ইভিএমকে দোষারোপ করবে৷

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী লেখেন, বিরোধীরা অংক কষা বন্ধ করে দিক৷ কোনও লাভ হবে না৷ এরপর বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলি প্রথমে ইভিএমকে দোষারোপ করবে৷ তারপর ভোটারদের দায়ী করবে৷ গতকাল ভোট শেষ হওয়ার পর পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই সমীক্ষাকে উড়িয়ে দিয়েছেন৷ জানিয়েছেন, এই এক্সিট পোল তিনি মানেন না৷ সেই মমতাকেও একহাত নেন গিরিরাজ৷ জানান, বিজেপির কাছ থেকে মমতার শেখা উচিত গণতন্ত্রের সম্মান করা৷ মমতার একনায়কতন্ত্র কোনও কাজ করবে না৷ নিজেকে শুধরে নিন৷ নাহলে ২০২১ এ আরও বড় হার অপেক্ষা করছে৷

গিরিরাজের মতো এক্সিট পোল নিয়ে উচ্ছসিত লোক জনশক্তি পার্টির প্রধান রামবিলাস পাসোয়ানও৷ জানান, শুরু থেকে বলে আসছিলাম এনডিএ এবার ৩০০র বেশি আসনে জয়ী হবে৷ বিহারের ৪০ এ ৪০ হবে৷ বিজেপি বিরোধী জোট এবারও কেন্দ্রে সরকার গড়তে না পারায় শিবসেনাও তাদের মুখপত্র সামনায় তাদের বিদ্ধ করেছে৷