উলুবেড়িয়া : পুজোয় যেন ক্রমেই লাগছে রাজনৈতিক রঙ। সেই সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে অসৌজন্যতার বহিঃপ্রকাশ। এবার দেবীর অসুরের গলায় খোদ মুখ্যমন্ত্রীর ছবি রাখায় ব্যাপক শোরগোল সৃষ্টি হল উলুবেড়িয়ার পূর্ব বিধানসভার মনসাতলার পুজোতে। অসুরের সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়তেই বিক্ষোভে ফেটে পড়েন স্থানীয় তৃনমূল নেতৃত্ব। তাদের দাবি, এর পেছনে বিজেপির হাত রয়েছে।

জানা গিয়েছে, ষষ্ঠীর সকালে ঠাকুর দেখতে এসে রীতিমতো অবাক হয়ে যান দর্শনার্থীরা। তাঁরা দেখেন অসুরের গলায় মুখ্যমন্ত্রীর ছবি! আর এরপরেই সেই ছবিসহ অসুরের ফটো তুলে সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড করেন কিছু দর্শনার্থী। যা ভাইরাল হতে সময় লাগেনি। বিষয়টি তৃনমূল নেতৃত্বের নজরে আসতেই অভিযোগ দায়ের করা হয় থানায়। পুলিশ এসে শেষমেশ অসুরের গলা থেকে মুখ্যমন্ত্রীর ছবি সরায়।

স্থানীয় স্তরে তৃনমূল নেতারা বিজেপির দিকে আঙুল তুললেও তা অস্বীকার করেছে বিজেপি। তাদের দাবি, এরসঙ্গে বিজেপির কোন যোগাযোগ নেই। উলুবেড়িয়ার পূর্ব বিধানসভার বিধায়ক ইদ্রিশ আলি এ ঘটনায় যারপরনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। তাঁর দাবি, “তিন দিনের মধ্যে ওই পুজোর উদ্যোক্তাদের ক্ষমা চাইতে হবে আমাদের কাছে।”

পুলিশি হস্তক্ষেপে মূর্তি থেকে মমতার ছবি সরলেও কারা এই ছবি লাগিয়েছিল ? আর কেনই বা সে ছবি লাগানো হয়েছিল সে সম্পর্কে কোনও তথ্য পাওয়া যায়নি এখনও। ঘটনায় একদিকে যেমন উলুবেড়িয়ায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে, তেমনই তৃণমূলের কর্মীদের মধ্যেও ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।