নিউজ ডেস্ক, কলকাতা: দিনহাটার মঞ্চে তখন একের পর এক বক্তব্যে বিজেপিকে, নরেন্দ্র মোদীকে বিদ্ধ করছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ আচমকাই তুলে ধরলেন মোক্ষম প্রশ্ন৷ একদিকে যখন নির্বাচনী আচরণ বিধি লাঘু হয়ে গিয়েছে, সেখানে শিলিগুড়ির মঞ্চে দাঁড়িয়ে নির্বাচনী বিধি ভঙ্গ করেছেন খোদ মোদী, এমনই অভিযোগ করলেন তৃণমূল নেত্রী৷

উল্লেখ্য ভারতীয় বায়ু সেনার এয়ার স্ট্রাইক বা নিরাপত্তা বাহিনীর কোনও ছবি ব্যবহার করা যাবে না ভোটের প্রচারে৷ সাফ জানিয়ে দিয়েছে নির্বাচন কমিশন৷ ইতিমধ্যেই প্রতিটি রাজনৈতিক দলের কাছে নোটিশ পাঠিয়েছে কমিশন৷ এই তথ্য তুলে ধরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রশ্ন, কীভাবে নিজের রাজনৈতিক প্রচার সেনার সাফল্যের কথা মোদী তুলে ধরছেন?

আরও পড়ুন : বাম-বিজেপি: ভবিষ্যত বাংলায় দ্বিমুখী প্রতিদ্বন্দ্বিতার ইঙ্গিত দিলেন সূর্যকান্ত মিশ্র

শিলিগুড়ির সভায় দাঁড়িয়ে মোদী বালাকোটের এয়ার স্ট্রাইক নিয়ে বক্তব্য রাখেন৷ বলেন বিজেপি সরকারের সাফল্য এই এয়ার স্ট্রাইক৷ ভারতের সেনা দেশের গর্ব৷ মোদীর এই বক্তব্যকেই হাতিয়ার করেছেন মমতা৷ বলেন, প্রকাশ্য মঞ্চে দাঁড়িয়ে কীভাবে নির্বাচনী বিধি ভঙ্গ করেন তিনি?

এদিন চিটফাণ্ড প্রসঙ্গেও সরব হন মমতা৷ বাম আমলে চিটফাণ্ড শুরু হয়েছে বলে দাবি করে তিনি বলেন, টাকার হাঙররা হ্যাঙার নিয়ে মিটিং করছে৷ আগে দিল্লি সামলা, পরে দেখিস বাংলা৷ মোদী দাঙ্গাবাজ লোক, একটা ভোটও বিজেপিকে দেবেন না৷ কেন্দ্রে বিজেপির সরকার বদলে দিন৷

আরও পড়ুন : তথ্যে অসঙ্গতি থাকায় অভিষেকের স্ত্রীকে শো-কজ করল স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক

মোদী ন্যাশনালিস্ট নয়, ফ্যাসিস্ট বলে কটাক্ষ করে এদিন মমতা বলেন গত পাঁচ বছরে কোনও কথা রাখেননি মোদী৷ এখন প্রতিশ্রুতির পাহাড় নিয়ে এসেছে৷ তৃণমূল ৪১ শতাংশ আসনে মহিলা প্রার্থী দিয়েছে৷ একটা করে ভোট দিন, বিজেপিকে পালটে দিন৷ এদিন এনআরসি প্রসঙ্গেও কটাক্ষ করেন তিনি৷

এদিন দিনহাটা থেকেই তৃণমূল নেত্রী এক এক করে জবাব দেন নরেন্দ্র মোদীকে৷ বিতর্কে বসার আহ্বান জানিয়ে বলেন তিনি সব প্রশ্নের উত্তর দিতে প্রস্তুত৷ কিন্তু মোদী সব উত্তর দিতে পারবেন কী?