কলকাতা: ডোনাল্ড ট্রাম্পের এইচ-১বি ভিসা নিয়ে নীতি প্রসঙ্গে এবার উদ্বিগ্ন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কারণ এমন মার্কিন সিদ্ধান্তে ভারতীয় তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থা এবং বিদেশে কর্মরত সেই সব সংস্থার কর্মীদের ভবিষ্যত নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করলেন এ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী৷ তিনি জানান, ওই সব কর্মীদের স্বার্থরক্ষা করা কেন্দ্রের কর্তব্য।

বৃহস্পতিবার এক ট্যুইট বার্তায় মমতা লিখেছেন, এইচ-১বি ভিসা নিয়ে যা খবর আসছে সেটা যথেষ্ট উদ্বেগের। এক্ষেত্রে তাঁদেরও উচিত তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থা ও কর্মীদের পাশে দাঁড়ানো। পাশপাশি তিনি দাবি করেন, ভারতে বিশ্বমানের তথ্যপ্রযুক্তি কর্মী রয়েছেন। তাঁদের মেধার জন্য দেশ গর্বিত। সেইসমস্ত কর্মীদের স্বার্থরক্ষা করাটাই কর্তব্য।

সম্প্রতি, মার্কিন সংসদের নিম্নকক্ষ, হাউস অফ রিপ্রেজেন্টেটিভসে নতুন ভিসা সংক্রান্ত বিল পেশ করেছে ট্রাম্প প্রশাসন। যেখানে এইচ-১বি ভিসা অধিকারীদের বেতন দ্বিগুণেরও বেশি করার সুপারিশ করা হয়েছে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট শীঘ্রই এই সংক্রান্ত বিলে স্বাক্ষর করতে চলেছেন।এই বিলকে বর্তমান মার্কিন প্রেসিডেন্ট শরণার্থী সংস্কারের বৃহত্তর প্রচেষ্টার অঙ্গ হিসেবে উল্লেখ করেছেন।এদিকে এইচ-১বি ভিসা নিয়ে নিজেদের উদ্বেগের দিকগুলি অবশ্য মঙ্গলবারই ট্রাম্প প্রশাসনকে জানিয়ে দিয়েছে ভারত।