স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: দুর্গাপুজোর আগে বড় ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শনিবার টুইট করে জানালেন, ১ অক্টোবর থেকে রাজ্যের সমস্ত সিনেমা হল-সহ সমস্ত বিনোদন মঞ্চ খুলে দেওয়া হবে। সেখানে মাস্ক পরা ও সামাজিক দূরত্ববিধি মেনে চলা বাধ্যতামূলক হবে বলে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন।

লকডাউনের ধাক্কা সামলে নিউ নরম্যালের ক্ষেত্রে ক্রমশ স্বাভাবিক হচ্ছে জনজীবন। দুর্গাপুজো যাতে ভালভাবে হয় তারজন্য পুজো কমিটিগুলোকে সবরকম সহযোগিতা করছেন মুখ্যমন্ত্রী। এবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করলেন, ১ অক্টোবর থেকে যাত্রাপালা, ওপেন এয়ার থিয়েটার, সিনেমা, সঙ্গীত অনুষ্ঠান, নৃত্য অনুষ্ঠান, কবিতা পাঠ, এবং ম্যাজিক শো-র মতো অনুষ্ঠান ৫০ জন অংশগ্রহণকারী নিয়ে অনুষ্ঠিত করা যাবে। মুখ্যমন্ত্রীর এই ঘোষণায় খুশি হল মালিক থেকে শুরু করে মঞ্চ শিল্পীরা।

লকডাউনের সময় বন্ধ হয়েছিল সিনেমা হল৷ আনলক পর্বে শপিং মল, জিম এমন অনেক কিছুরই দরজা খুললেও সিনেমা হল বন্ধ ছিল। ফলে বড়পর্দায় ছবি দেখার মজা ভুলে ওটিটি প্ল্যাটফর্ম নিয়েই এতদিন মজেছিলেন সিনেমাপ্রেমীরা।

সিনেমা হল বন্ধ থাকায় একদিকে যেমন দর্শক হলমুখো হতে পারছিলেন না, তেমনই সিনেমার সঙ্গে যুক্ত অনেকের বিপুল আর্থিক ক্ষতি হচ্ছে৷ হল মালিক থেকে শুরু করে কর্মচারী সকলের একপ্রকার আয় বন্ধ হয়ে ছিল৷ অন্যদিকে একের পর এক ছবি তৈরি হয়ে পড়ে রয়েছে যা হলে মুক্তি পেতে পারছে না৷ লোকসান হচ্ছে প্রযোজকদেরও৷ যেখানে পুজোর সময় দেশজুড়ে বড় ব্যানারের সিনেমা রিলিজ করার রীতি রয়েছে৷ তাই মুখ্যমন্ত্রীর এই ঘোষণার পর আবার যেমন দর্শকরা বড়পর্দায় ছবি দেখার স্বাদ ফিরে পাবেন তেমনই শিল্পী, সিনেমা হলের কর্মী-মালিকদেরও আয়ের রাস্তা খুলবে।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।