নয়াদিল্লি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে বৈঠক করলেন রাজ্য়ের মুখ্য়মন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়৷ বৈঠক শেষে নর্থ ব্লক থেকে বেরিয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন মমতা৷ এদিন অমিত শাহের সঙ্গে অসমে এনআরসি প্রয়োগের বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হয় মমতা৷ এরই সঙ্গে পশ্চিমবঙ্গে নাগরিকপঞ্জি বা এনআরসির প্রয়োজন নেই জানিয়ে মমতা বলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে রাজ্য়ে এনআরসি প্রয়োগ নিয়ে কোনও কথাই হয়নি৷

এদিন অমিত-মমতা বৈঠকে উঠে আসে অসমে এনআরসি প্রসঙ্গ৷ মমতা বলেন অসমে ১৯ লক্ষ মানুষের নাম বাদ গিয়েছে৷ সেই তালিকায় রয়েছেন অসংখ্য় বাংলাভাষী, হিন্দিভাষী, গোর্খারা৷ কিন্তু যারা বৈধ নাগরিক, তাদের এই দেশে থাকার অধিকার রয়েছে৷ ১৯ লক্ষ মানুষ, যাদের নাম বাদ গিয়েছে তাদের আরেকবার সুযোগ দেওয়া হোক৷

নর্থ ব্লকে বৈঠক শেষে মমতা বলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে একটা চিঠি দেওয়া হয়েছে৷ এছাড়াও রাজ্যের সঙ্গে একাধিক আন্তর্জাতিক সীমান্ত রয়েছে৷ সেগুলির নিরাপত্তা নিয়ে আলোচনা হয়েছে বলে মমতা জানান৷

এদিন রাজীব কুমার ইস্যুতে কোনও কথা হয়েছে কীনা, জানতে চান সাংবাদিকরা৷ তবে কার্যত সেই প্রসঙ্গ এড়িয়ে যেতে দেখা গেল মমতা বন্দ্য়োপাধ্য়ায়কে৷ জানিয়ে দিলেন, এই ব্য়াপারে কোনও কথা হয়নি৷ তারপরেই সাংবাদিকদের সামনে থেকে সরে যান মমতা৷

এদিন অমিত-মমতা বৈঠককে কার্যত তুলোধনা করেছে বিরোধী শিবির৷ সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী বলেন মমতা বাংলার মুখ্য়মন্ত্রী, নাকি অসমের? বাংলা নিয়ে কথা না বলে অসমের হয়ে কেন কথা বললেন উনি? প্রশ্ন সুজনের৷ সুযোগ পেয়েও বাংলার কথা না তুলে ধরে কার্যত বড় ভুল করেছেন মমতা বলে এদিন জানিয়ে দেন সুজন চক্রবর্তী৷