মালদহ: মারণ করোনা এবার থাবা বসিয়েছে মালদহের আম ব্যাবসাতেও। করেনাভাইরাসের হামলার জেরে এবছর মালদহে আম ব্যবস্য়া কয়েকশো কোটি টাকার আশঙ্কা করা হচ্ছে। এমনিতেই এবছর আমের ফলন কম হয়েছে, তার ওপর করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ায় ভিনরাজ্য ও পড়শি বাংলাদেশ-সহ অন্য দেশে আম রফতানি ভীষণভাবে মার খাবে বলে করছেন ব্যবসায়ীরা। সব মিলিয়ে এবছর মালদহের আম ব্যবসায় ৫০০ কোটি টাকা ক্ষতির আশঙ্কা ব্যবসায়ীদের।

ভয়াল করোনার থাবায় সংকটে গোটা বিশ্ব-অর্থনীতি। ভারতেও করোনা ব্যাপক আর্থিক সংকট তৈরি করবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। ইতিমধ্যেই আর্থিক দূরবস্থার বেশ কিছু ছবিও গত কয়েকদিনে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ধরা পড়েছে। দেশের অন্যান্য রাজ্যগুলির মতো পশ্চিমবঙ্গেও করোনার জেরে একাধিক ব্যবসা ক্ষতিগ্রস্ত। বিপুল আর্থিক ক্ষতির আশঙ্কা করছেন ব্যবসায়ীরা।

এবার মলদহে আম ব্যবসাতেও কয়েকশো কোটি টাকার ক্ষতির আশঙ্কা ব্যবসায়ীদের। আম চাষি ও ব্যবসায়ীদের প্রত্যেকে দারুণ সংকট নেমে আসার আশঙ্কা করছেন। লক্ষাধিক মানুষের রুজি-রোজগার ব্যাহত হওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে মালদহে।

কোটি কোটি টাকা ক্ষতির আশঙ্কায় আম চাষি ও ব্যবসায়ীরা। করোনার জেরে এবার ভিন রাজ্যের পাশাপাশি বাংলাদেশ-সহ অন্য দেশেও আম যাওয়া অনিশ্চিত।

জেলার ৩০ হাজারেরও বেশি হেক্টর জমিতে আম চাষ হয়েছে। ফি বছর ৫০০ কোটি টাকারও বেশি আম ব্যবসায় লেনদেন হয় মালদহে। কিন্তু এবার আম ব্যবসা ব্যাপকভাবে মার খাবে বলে আশঙ্কা করছেন আম চাষি ও কৃষকরা। প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে আম চাষের সঙ্গে যুক্ত লক্ষাধিক ব্যক্তি আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবেন বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প