প্রার্থী পরিচয়

কেন্দ্র: দক্ষিণ মালদহ

আবু হাসেম খান চৌধুরী(ডালুবাবু)

রাজনৈতিক দল: কংগ্রেস

বয়স: ৮১ বছর

লেখাপড়া: ইংল্যান্ডে পড়াশোনা৷ দর্শনশাস্ত্রে স্নাতক

পেশা: সাংসদ, রাজনীতি, ব্যবসা

রাজনৈতিক কেরিয়ার: কংগ্রেসের টিকিটে বিধায়ক ও তিনবারের সাংসদ

শখ: খেতে ভালবাসেন

স্ত্রী: রুথ খান চৌধুরী

ভোটারদের কাছে গিয়ে বলছেন: আপনারা এতদিন যেভাবে মালদহে কংগ্রেসের হাত শক্ত করেছেন, এবারও সেভাবেই পাশে থাকুন৷

জিতলে প্রথম কাজ: ইন্টারন্যাশানাল ফ্রুট প্রসেসিং ইউনিট খুলবেন৷

মোয়াজ্জেম হোসেন

রাজনৈতিক দল: তৃণমূল

বয়স: ৫৮ বছর

লেখাপড়া: এমবিবিএস

পাশ: চিকিৎসক

রাজনৈতিক কেরিয়ার: চিকিৎসক হিসেবে প্রয়াত কংগ্রেসের কিংবদন্তী নেতা গনিখান চৌধুরীর ঘনিষ্ট ছিলেন৷ তবে কোনও রাজনৈতিক দলের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন না৷ পরে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দেন৷গত তিন বছর ধরে দক্ষিণ মালদহে তৃণমূল কংগ্রেসের জেলা সভাপতি৷ ২০১৪ সালে লোকসভা ও ২০১৬ সালে বিধানসভা নির্বাচনে লড়ে পরাজিত হয়েছেন৷

শখ: চিকিৎসা ও সমাজ সেবা

ভোটারদের কাছে গিয়ে বলছেন: দিদি উন্নয়নের কাজ দেখে আমায় ভোট দিন৷

জিতলে প্রথম কাজ: পিছিয়ে পড়া এলাকায় রাস্তা ও পানীয় জলের কাজ করা৷

শ্রীরূপা মিত্র চৌধুরী

রাজনৈতিক দল: বিজেপি

বয়স: ৫৪

লেখাপড়া: উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরাজিতে এম.এ

পেশা: সমাজসেবা

রাজনৈতিক কেরিয়ার: ১৯১৫ সাল থেকে বিজেপির সঙ্গে যুক্ত৷বর্তমানে রাজ্য কমিটির সদস্য

শখ: লিখতে ভালোবাসি, ক্রাফট মেকিং, ছবি আঁকা

ভোটারদের কাছে গিয়ে বলছেন: মোদী সরকারের পাঁচ বছরের উন্নয়ন দেখে আমাকে ভোট দিন৷ আমি জিতলে দক্ষিণ মালদহ জেলাকে নির্ভয়া জেলা তৈরি করব৷

জিতলে প্রথম কাজ: গঙ্গার ভাঙন প্রতিরোধ করতে চাই৷ ভয়মুক্ত জীবন দিতে চাই৷