স্টাফ রিপোর্টার, মালদহ: দীর্ঘদিনের বেহাল রাস্তা সারাইয়ের দাবি জানিয়ে শুক্রবার সকালে রাজ্য সড়ক অবরোধ করে রাস্তা সারানোর দাবীতে বিক্ষোভ দেখালেন গ্রামবাসীরা। অফিস টাইমে গ্রামবাসীদের বিক্ষোভ জেরে সকাল থেকেই ব্যাপক যানজটের সৃষ্টি হয়। শুক্রবার ঘটনাটি ঘটেছে মালদহ জেলার পুখুরিয়া থানার নওগামা এলাকায়।

ঘটনার খবর পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় পুখুরিয়া থানার পুলিশ। পুলিশ গেলে পরিস্থিতি কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আসে। যদিও পরে ব্লক প্রশাসনের আশ্বাসে অবরোধ তুলে নেন গ্রামবাসীরা। জানা গিয়েছে, দীর্ঘ সাত কিলোমিটার রাস্তা গত তিন বছর ধরে বেহাল অবস্থায় পড়ে রয়েছে। যার ফলে মালদহ রতুয়া রাজ্য সড়কে মাঝে মধ্যেই দুর্ঘটনার কবলে পড়ে যানবাহন থেকে শুরু করে এলাকার বাসিন্দারা। এই নিয়ে বহুবার বিষয়টি প্রশাসনকে জানানো হলেও তারা কোনও ভ্রুক্ষেপ করছে না বলে অভিযোগ গ্রামবাসীদের। যার ফলে ভুক্তভোগী হতে হচ্ছে এলাকার মানুষেদের।

এই মালদহ রতুয়া রাজ্য সড়ক দিয়ে কয়েক হাজার মানুষ যাতায়াত করেন প্রতিদিন। রাস্তা বেহাল থাকার কারনে স্কুলছাত্রী থেকে অফিস যাত্রী এবং সাধারণ মানুষ কেউই গন্তব্যস্থলে সঠিক সময়ে পৌঁছতে পারেনা। এছাড়াও বৃষ্টি হলে তা ভয়ঙ্কর আকার ধারন করে। বিষয়টি স্থানীয় প্রশাসন ও ব্লক প্রশাসনকে জানানো হলেও এই বিষয়ে কেউ কর্ণপাত করেনি। বাধ্য হয়ে শুক্রবার গ্রামের বাসিন্দারা মালদহ রতুয়া রাজ্য সড়ক অবরোধ করে। তাদের দাবি, রাস্তার কাজ শুরু না হওয়া পর্যন্ত তাঁরা এই অবরোধ চালিয়ে যাবে।

গ্রামের বাসিন্দা শিষ মন্ডল জানান, সদর শহরের সঙ্গে যোগাযোগের জন্য এই রাজ্যে সড়কটি মানুষের কাছে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু তা সত্ত্বেও তিন বছর ধরে রাস্তা বেহাল। ফলে বহু মানুষ দুর্ঘটনার কবলে পড়ছে। ইতিমধ্যে দুর্ঘটনার কবলে পড়ে দুজনের মৃত্যু হয়েছে। প্রশাসনের নজরে বিষয়টি জানলেও তারা কোনও ব্যবস্থা নিচ্ছে না। তাই এদিন বাধ্য হয়ে মালদহ রতুয়া রাজ্য সড়ক অবরোধ করেছেন তাঁরা। তিনি আরও বলেন, ‘আমরা চাই দ্রুত রাস্তার কাজ করা হোক।যদিও ব্লক প্রশাসনের আশ্বাসে আমরা অবরোধ তুলে নিয়েছি। যদি রাস্তা ঠিক না হয় আগামী দিনের ফের অবরোধ করা হবে’।

এদিকে এই বিষয়ে পুখুরিয়ার বিডিও সোমনাথ মান্নাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তিনি বলেন, গ্রামবাসীদের অভিযোগের কথা শুনেছি। খুব শীঘ্রই ওই রাস্তা মেরামতের কাজ শুরু করা হবে।