স্টাফ রিপোর্টার, মালদহ: চোরের আতঙ্ক ছড়াল মালদহ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে৷ প্রতিদিনই হাসপাতালে রোগীর বেড থেকে খোয়া যাচ্ছে দামি মোবাইল ফোন-সহ টাকা। হাসপাতালের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন। হাসপাতালে এই ধরনের ঘটনা কার্যত স্বীকার করে নিয়েছেন মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের সহকারি অধ্যক্ষ অমিত দাঁ।

আরও পড়ুন: সাহিত্য আকাদেমির উদ্যোগে তৃতীয় লিঙ্গ কবি সম্মেলন

মালদহ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে আশপাশের জেলা-সহ পার্শ্ববর্তী বিহার ও ঝাড়খন্ড থেকে বহু রোগী চিকিৎসা করাতে আসেন। রোগীর আত্মীয়দের অভিযোগ, রোগীর কাছে মোবাইল ও টাকা রাখা হলে সেই দামি মোবাইল ও টাকা চুরি হয়ে যায়। বিষয়টি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে জানালেও কোনও লাভ হয়নি।

তাঁদের আরও অভিযোগ, শুধু হাসপাতালের ভিতরে নয় হাসপাতালের চত্বরে যে সমস্ত রোগীরা ঘুমিয়ে থাকে৷ রাতে তাঁদের জিনিস চুরি হয়ে যাচ্ছে। ফলে বিপাকে পরছে চিকিৎসা করাতে আসা রোগী ও তার পরিবারের সদস্যরা। গোটা বিষয় মেডিক্যাল কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

আরও পড়ুন: মর্গ্যানদের ২৫৭ রানের টার্গেট দিল বিরাটবাহিনী

সহকারি অধ্যক্ষ অমিত দাঁ বলেন, ‘‘হাসপাতালে নিরাপত্তারক্ষী কম রয়েছে। মোট নিরাপত্তারক্ষী রয়েছে ৬২ জন। ফলে তিনটি শিফটে কাজ করা কঠিন হয়ে যাচ্ছে। বিষয়টি আমি শুনেছি। ইতিমধ্যে পুলিশকে সমস্ত ঘটনা জানিয়েছি। আমরাও চেষ্টা করছি যাতে আগামি দিনে এই ধরনের ঘটনা আর না ঘটে।’’

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ