প্রাক্তন ‘মিস মস্কো’র সঙ্গে বিয়ের গুঞ্জনে বিতর্কের মুখে পড়েছিলেন মালয়েশিয়ার ১৫তম রাজা সুলতান মোহাম্মদ পঞ্চম। চলতি সপ্তাহে তার মনোনয়ন করা মালয় রাজাদের সঙ্গে বৈঠকের পর শুরু হয় তার পদত্যাগের গুঞ্জন। রবিবার রাজপ্রাসাদের এক মুখপাত্র জানালেন, সংবিধানের ৩২ (৩) ধারা অনুযায়ী দেশের সর্বোচ্চ শাসকের পদ থেকে অব্যাহতি নিয়েছেন তিনি। রাজপরিবারের বিবৃতিতে রাজার পদত্যাগের কারণ হিসেবে নিজ রাজ্যের জনগণের স্বার্থ রক্ষায় তাদের কাছে ফিরে যাওয়ার কথা জানানো হয়েছে।

প্রতিনিধিত্বমূলক গণতন্ত্রের সরকারব্যবস্থায় পরিচালিত হয় মালয়েশিয়া। ব্রিটেনের ওয়েস্ট মিনিস্টার পার্লামেন্টারি সিস্টেম ধারার সরকারব্যবস্থা অনুযায়ী রাষ্ট্র পরিচালনা করা হলে সেখানে প্রতীকী রাজতন্ত্র রয়েছে। ১৯৫৬ সালে ব্রিটিশ উপনিবেশের কবলমুক্ত হওয়ার পর সে দেশের রাজ্যগুলোর অস্তিত্ব বিলোপ করা হলেও ৯ মালয় রাজ্যের রাজার সমন্বয়ে একটি কাউন্সিল গঠন করা হয়। কাউন্সিল অব কিংস্ নামের ওই পরিষদের ওই ৯ সদস্য তাদের নিজেদের ভোটে পর্যায়ক্রমে এক একজনকে রাজা নির্বাচিত করেন।

২০১৬ সালের ডিসেম্বরে কাউন্সিল অব কিংস্-এর ভোটে উত্তরপূর্বাঞ্চলীয় মালয় রাজ্য কেলানতানের শাসক সুলতান মোহাম্মদ রাজা নির্বাচিত হন। দায়িত্ব নেওয়ার দুই বছরের মাথায় পদত্যাগ করলেন তিনি।

তার পদত্যাগের প্রসঙ্গে রাজপরিবারের দেওয়া বিবৃতিতে বলা হয়, কেলানতান প্রাদেশিক সরকারের অংশ হতে ফিরে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন মহামান্য রাজা। ওই বিবৃতিতে বলা হয়, বিশেষ করে কেলানতানের জনগনের সুরক্ষা এবং সেখানকার মানুষের উন্নয়ন ঘটাতে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি।

গত বছর দুই মাসের চিকিৎসার জন্যে ছুটি নেন ৪৯ বছর বয়সী সুলতান মোহাম্মদ পঞ্চম। ২ নভেম্বর শুরু হওয়ার কয়েক দিনের মাথায় বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়াতে প্রাক্তন ‘মিস মস্কো’ ২৫ বছর বয়সী ওকসানা ভোয়েভোদিনার সঙ্গে তার বিয়ের ছবি ছড়িয়ে পড়ে। বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম দাবি করে, মস্কোতে হয়েছে তাদের বিয়ের অনুষ্ঠান। সে সময় সংবাদমাধ্যমের পক্ষ থেকে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদের কাছে এ ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি সরাসরি বিয়ের কথা অস্বীকার করেননি।

তবে তিনি দাবি করেছিলেন, ‘মিস মস্কো’ ওকসানার নাম জানেন না তিনি। আর বিয়ের ব্যাপারেও তাকে আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু জানানো হয়নি। তবে হঠাত করে রাজার পদত্যাগে প্রশ্ন উঠছে তাহলে কি বিয়ের জন্যে পদত্যাগ করলেন তিনি?