কলকাতা: কলকাতা ফ্র্যাঞ্চাইজির গুরুদায়িত্ব তাঁর কাঁধে। ভালো শুরু করেও হারের হ্যাটট্রিকে আইপিএলে হঠাতই বেশ কোণঠাসা নাইটরা। আগামী শুক্রবার ঘরের মাঠ ম্যাচ আরসিবির বিরুদ্ধে। তাই ১৪ এপ্রিল ঘরের মাঠে ধোনির দলের বিরুদ্ধে নামার আগে বিশ্বকাপ নিয়ে ভাবার অবকাশ ছিল না দলনায়ক দীনেশ কার্তিকের। কিন্তু নির্বাচকরা তাঁর উপর আস্থা রাখায় উচ্ছ্বাস চেপে রাখতে পারলেন না নাইট অধিনায়ক। বিশ্বকাপের দলে সুযোগ পেয়ে এক ভিডিওবার্তায় জানালেন, স্বপ্ন সত্যি হল।

বিকল্প উইকেটরক্ষক হিসেবে প্রতিভাবান ঋষভ পন্তের সঙ্গে তাঁর বিশ্বকাপ দলে ঢোকার ঠান্ডা লড়াইটা বেশ উপভোগ করছিলেন ক্রিকেট অনুরাগীরা। বিশ্বকাপের আগে ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে শেষ ওয়ান ডে সিরিজে তাঁকে দলেই রাখেননি নির্বাচকরা। সুযোগ পেয়েছিলেন পন্ত। তাই শেষ ল্যাপে এসে অনিশ্চিত হয়ে পড়ে নাইট অধিনায়কের বিশ্বকাপের দলে সুযোগ পাওয়ার বিষয়টি।

শেষ অবধি তারুণ্যের পরিবর্তে অভিজ্ঞতায় আস্থা রাখলেন নির্বাচকরা। পন্ত সুযোগ না পাওয়ায় হতাশ প্রাক্তন ক্রিকেটারদের অনেকেই। কিন্তু ২০০৭’র পর দ্বিতীয়বারের জন্য বিশ্বকাপে দলে সুযোগ পেয়ে আপ্লুত কার্তিক। আইপিএল শুরু থেকেই ব্যস্ত তাঁর নাইট সংসার নিয়ে। এমনকি দল নির্বাচনের আগের দিনও ইডেনে চেন্নাই ম্যাচ থাকায় বিশ্বকাপ নিয়ে ভাবার অবকাশ ছিল না। সর্বভারতীয় এক সংবাদমাধ্যমকে কার্তিক জানিয়েছেন সেই কথা।

তবে নাইট অধিনায়কের কথায় ম্যাচ শেষের পরই আগামী দিন দল নির্বাচনের কথা ভেবে একটু নার্ভাস হয়ে পড়েছিলেন তিনি। এরপর নির্বাচকরা তাঁকে বিশ্বকাপের দলে রাখায় একটি ভিডিওবার্তায় কার্তিক জানান, ‘বিশ্বকাপগামী দলের সদস্য হতে পেরে ভীষণই উচ্ছ্বসিত। এটা আমার কাছে স্বপ্ন সত্যি হওয়ার মতই। কঠিন জার্ণিতে পাশে থাকার জন্য সমর্থকদের ধন্যবাদ।’ তাঁর প্রতি আস্থা রাখার জন্য অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও কোচ রবি শাস্ত্রীকেও ধিন্যবাদ জানিয়েছেন কার্তিক।

সোমবার মুম্বইয়ে দল নির্বাচনের পর পন্তের পরিবর্তে কার্তিককে দলে রাখা নিয়ে ব্যাখ্যা দিয়েছিলেন নির্বাচন কমিটির চেয়ারম্যান এমএসকে প্রসাদ। মূলত উইকেটকিপিং দক্ষতায় পন্তকে পিছনে ফেললেন দীনেশ। নির্বাচক প্রধান প্রসাদ সংবাদিক বৈঠকে বলেন, ‘বিষয়টি নিয়ে নির্বাচক কমিটিতে আলোচনা হয়েছে। কিন্তু এমএস ধোনি চোট পেলে তবেই দ্বিতীয় উইকেটকিপারে খেলা সম্ভব। এই অবস্থায় দীনেশ চাপ নিতে পারবে। আমরা দেখেছি চাপের মুখে দীনেশ ম্যাচ বের করেছে। সেই কারণে দীনেশকে বেছে নেওয়া হয়েছে। পন্ত প্রতিশ্রুতিময় ক্রিকেটার৷ ওর এখনও অনেক সময় রয়েছে৷ দুর্ভাগ্য পন্তকে দলে রাখা গেল না।’