মুম্বই: বুথ ফেরত সমীক্ষায় ইঙ্গিত মিলেছিল মোদী ফিরছেন আর তার প্রভাবে সোমবারে রীতিমতো চাঙ্গা ছিল শেয়ার বাজার৷ এর পরে বৃহস্পতিবার আসল ফলাফল বের হতে থাকায় তখনও শেয়ার বাজারের সূচককে তেমন ভাবেই উঠত দেখা গিয়েছে ৷ তারপরের দিনও শুক্রবারও বাজার চাঙ্গা ছিল ৷

এভাবে বিজেপি নিজেই একক ভাবে সংখ্যা গরিষ্ঠতা পাওয়ায় এবং এনডিএ জোটের আসন সংখ্যা সাড়ে তিনশো ছাড়িয়ে যাওয়ায় অনেক লগ্নিকারীই মনে করেছে এবার মোদী সরকার সংস্কারের ঘোড়া ছোটাবে ৷ কারণ বিরোধী বা জোট সঙ্গীর সংস্কার বিরোধী চাপ তেমন সইতে হবে না৷

বৃহস্পতিবারের মতো শুক্রবারে সেনসেক্স উঠেছে ৬২৩.৩৩ পয়েন্ট। পাশাপাশি নিফ্‌টি ১৮৭.০৫ পয়েন্ট। বাজার বন্ধের সময়ে নয়া রেকর্ড গড়ে সেনসেক্স অবস্থান করেছিল ৩৯,৪৩৪.৭২ পয়েন্ট। আগের সপ্তাহের তুলনায় চলতি সপ্তাহে সেনসেক্স বেড়েছে ১,৫০৩ পয়েন্ট। অন্যদিকে টাকাও কিছুটা শক্তিশালী হতে দেখা গিয়েছে ৷ ডলারের বিনিময় মূল্য ৬৩.৫৩ টাকা যা আগের দিনের তুলনায় ৪৯ পয়সা বেশি৷

এই পরিস্তিতিতে অসমাপ্ত সংস্কারগুলি শেষ করার পাশাপাশি আরও কিছু নতুন সংস্কার মোদী সরকার আনবে বলেই মনে করছে শিল্প ও রাজনৈতিক মহলের একাংশ। পাশাপাশি লগ্নিকারীদের চোখ এখন নতুন সরকারের বাজেটের দিকে যা জুলাই মাসে পেশ হওয়ার কথা। এই কয়েক দিন বাজারের গতি উত্তরমুখি থাকলেও মাঝে মাঝে বাজারে সংশোধন আসবে বলেই মনে করেছেন বাজার বিশেষজ্ঞরা৷