মকর সংক্রান্তি ২০২১: হিন্দু ধর্মের রীতি রেওয়াজ অনুযায়ী মকর সংক্রান্তি এমন এক উত্সবের দিন, যেদিন যে কোনও দান ধ্যানের কাজ করলে অনেক বেশি পুন্য মেলে। মকর সংক্রান্তিকে বলা হয় দান, পুণ্য এবং দেবতাদের দিন। এই দিন বেশ কিছু এলাকায় ‘খিচদি’ নামেও পরিচিত। পৌরাণিক মতে, মকর সংক্রান্তির দিন সূর্য দেব তাঁর পুত্র শনির বাড়িতে যান।

মকর সংক্রান্তি থেকেই মরসুমের পরিবর্তন শুরু হয় বলে মনে করা হয়। শীতের মৌসুম মোটামুটি মকর সংক্রান্তি থেকে শেষ হতে থাকে। এই বছর মকর সংক্রান্তি নিয়ে বিশেষ যোগ তৈরি হচ্ছে কারণ সূর্য (সূর্য, শনি, বৃহস্পতি, বুধ এবং চাঁদ) সহ আরও পাঁচটি গ্রহ মকর রাশিতে বসছে।

মকর সংক্রান্তি তারিখ এবং স্নানের শুভ সময়

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৮ টায় শুরু হবে মকর সংক্রান্তি। জ্যোতিষ শাস্ত্র মতে এটি অত্যন্ত শুভ সময় হিসাবে বিবেচিত। সমস্ত শুভ কাজগুলি এই সংক্রান্তির পরেই হয়। আচার্য কমলানন্দ লালের জানিয়েছেন, এই শুভ সময় সকাল ৮.৩০ থেকে সন্ধ্যা ৫.৪৬ মিনিট অবধি থাকবে। একই সঙ্গে মহাপুন্য সময় থাকবে সকাল ৮.৩০ থেকে সকাল ১০ টা ১৫ অবধি। এই সময়ে স্নান ও দান-দক্ষিণার মতো কাজ করা যেতে পারে।

মকর সংক্রান্তিতে কী করবেন?

এই দিন সকালে স্নান করে লাল শালুতে ফুল রেখে সূর্যদেবকে নিবেদন করুন। শ্রীমদ্ভাগবদের একটি অধ্যায় পড়ুন বা গীতা পাঠ করুন।নতুন শস্য, কম্বল, তিল এবং ঘি দান করুন। ঈশ্বরের কাছে খাদ্য উৎসর্গ করুন এবং প্রসাদ হিসাবে গ্রহণ করুন। এই দিনটিতে কোনও গরীব ব্যক্তিকে তিল এবং পাত্রে দান করলে আপনি অনেক সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন।

মকর সংক্রান্তির গুরুত্ব?

মকর সংক্রান্তির উত্সবটিকে কখনও কখনও উত্তরায়ণও বলা হয়। মকর সংক্রান্তির দিন গঙ্গা স্নান, উপবাস, কাহিনী, দান ও ভগবান সূর্যের পূজা করার বিশেষ গুরুত্ব রয়েছে। জ্যোতিষ শাস্ত্র মতে, মকর সংক্রান্তির দিন প্রদত্ত দানে শতগুণ বেশি ফল লাভ করা যায়।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।