দুবাই: ‘রঈস’-এ অভিনয় করেছেন- এখনও নাকি বিশ্বাসই করতে পারছেন না মাহিরা খান। সংযুক্ত আরব আমির শাহীর সংবাদপত্র khaleej times-কে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে এমন মন্তব্যই করলেন পাকিস্তানী অভিনেত্রী।

এই মুহূর্তে মাহিরা খান দুবাইতে এবং সেখানেই ‘রঈস’-এর প্রোমশন করছেন।  রঈস নিয়ে বলতে গিয়ে মাহিরা জানান, “রঈস-এর জন্য যখন প্রথম আমার কাছে ফোন আসে, তখন আমি বুঝতে পারছিলাম না কি প্রতিক্রিয়া দেওয়া উচিত। খুব তাড়াতাড়ি ঘটেছিল, আর আমি বলিউডের কাউকে চিনতামও না। আমি কখনও কাউকে আমার পোর্টফোলিও পাঠাইনি, কারোর সঙ্গে দেখাও করিনি। হঠাৎ করে অফারটি পেয়েছিলাম। আমার কাজ দেখে আমাকে অডিশনের জন্য ফোন করা হয় এবং আমায় আসতে বলা হয়। এক সপ্তাহের মধ্যে এসব ঘটে। আমি ব্যাপারটি হজমই করতে পারিনি। এমনকি এখনও বুঝতে পারছি না”।
কো-স্টার শাহরুখের থেকে অনেক কিছু শিখেছেন মাহিরা। এই ব্যাপারে মাহিরা বলেন, “আমি সত্যিই খুব কৃতজ্ঞ যে আমি শাহরুখের সঙ্গে কাজ করতে পেরেছি। উনি একজন বড় স্টার। উনি এত কর্মঠ যে বিশ্বাস করা যায় না। আমি অনেক কিছু শিখেছি এবং সেগুলি নিজের সঙ্গে বাড়ি নিয়ে এসছি। আমি শিখেছি যে তুমি যত বড় হবে, তোমায় আরও বেশী কর্মঠ হতে হবে”।

তিনি জানান, ছবিতে ‘জালিমা’ গানট একদম শেষমুহূর্তে যোগ করা হয়। এরও আগে তিনি এরকম রোম্যান্টিক গানের অস্নগে কাজ করেননি। আর প্রথম বারেই কিং খানের সঙ্গে অন স্ক্রিন রোম্যান্স করে খুশি মাহিরা। ছবিতে উড়ি উড়ি গানটি শিখতেও অনেক পরিশ্রম করতে হয় মাহিরাকে। গানে গরবা নাচ আছে। প্রথমে শিখতে সময় লাগলেও, শেখার পর মাহিরার খুব ভালো লেগেছে এই গরবা নাচ।

‘রঈস’ ছবিতে তাঁর চরিত্রটি সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন, “আমার চরিত্রটি একজন শক্তিশালী মহিলার। চরিত্রটি দয়ালু এবং সে হল ‘রঈস’-এর বিবেক”।