চেন্নাই: বন্যা কবলিত তামিলনাড়ুর পাশে দাঁড়াল ওরাও৷ বন্যা দুর্গতদের হাতে নিজের সঞ্চয়ের এক লক্ষ টাকা তুলে দিলেন মহারাষ্ট্রের বারাঙ্গনারা৷
মহারাষ্ট্রের আহমেদনগরের যৌনকর্মীরা তামিলনাড়ুর জন্য গঠিত ত্রাণ তহবিলে এই টাকা তুলে দেন৷ ‘স্নেহালয়’ নামে একটি এনজিও-র অনুষ্ঠানে জেলাশাসক অনিল তাওড়ের হাতে এই টাকা তুলে দেওয়া হয়৷

ওই এনজিও’র প্রতিষ্ঠাতা গিরিশ কুলকার্নি জানান, চেন্নাইয়ে বন্যা পরিস্থিতির কথা শোনার পরই উদ্বিগ্ন হয়ে উঠেছিল এখানকার যৌনকর্মীরা৷ তামিলনাড়ুর জন্য কিছু করার সিদ্ধান্ত নেন তাঁরা৷ এর পরই জেলার প্রায় তিন হাজার যৌনকর্মী মিলিত ভাবে তাদের সঞ্চয়ের টাকা ত্রাণ তহবিলে দান করার সিদ্ধান্ত নেন৷ মোট এক লক্ষ টাকা দান করে ওরা৷ কুলকার্নি আরও জানান, গুঞ্জ নামে দিল্লির একটি এনজিও’র সঙ্গেও তাঁরা যোগাযোগ রাখছেন৷ মিলিতভাবে ত্রাণের টাকা সংগ্রহ করছেন তাঁরা৷  

 

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.