মুম্বই: কীর্তি এমনই যে পাঠ্যবইয়ে উঠে এল তাঁর নাম৷ তিনি রেলওয়ে প্রোটেকশন ফোর্স (RPF)-এর সাব-ইন্সপেক্টর রেখা মিশ্রা(৩২)৷ তাঁর কাজের জন্যই এবার মহারাষ্ট্র স্টেট বোর্ডের দশম শ্রেণির মারাঠি পাঠ্যবইয়ে তাঁর সম্পর্কে পড়বে ছাত্র-ছাত্রীরা৷

সংবাদ সংস্থা এএনআই-এর সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে রেখা বলেন, “শিশু এবং নারীদের নিরাপত্তার কাজই আমি করি৷ আর আমার এই কাজ এইভাবে স্বীকৃতি পাওয়ার জন্য আমি উচ্ছ্বসিত৷ কি করা উচিত এবং উচিত নয় সে সম্পর্কে শিশুদের আরও সচেতন হওয়া উচিত৷ এখনও পর্যন্ত ৯৫৩ জন শিশুকে সাহায্য করেছি৷ অপহৃত, বা হারিয়ে যাওয়া শিশুদের জন্য কাজ করি৷ তাদের উজ্জ্বল ভবিষ্যতের জন্যই আমার কাজ-প্রচেষ্টা৷ আমার টিমও এই ধরনের শিশুদের উদ্ধারের কাজ করে৷ উদ্ধারের পর তাদের অভিভাবকদের জানানো হয় অথবা হোমে পাঠানো হয় তাদের৷ অভিভাবকদেরও শিশুদের অধিকার সম্পর্কে জানা উচিত৷ ছোটদের ওপর অপ্রয়োজনীয় চাপ দেওয়া উচিত নয়৷” তবে এর পাশাপাশি তাঁকে সমর্থন করার জন্য রেখা সিনিয়রদের প্রতি কৃতজ্ঞতাও জানান৷

সেন্ট্রাল রেলওয়ের চিফ পাবলিক রিলেশনস্ অফিসার সুনীল উদাসী রেখাকে অভিনন্দন জানান৷ দেশের জন্য তিনি গর্ব বলে জানান উদাসী৷ রেখার কথা জেনে অনেকেই অনুপ্রাণিত হবেন বলে আশাবাদী তিনি৷
বিগত কয়েক বছরে রেলস্টেশন থেকে বিভিন্ন পালিয়ে আসা, বা দুঃস্থ শিশুদের উদ্ধার করে তাদের জন্য কাজ করেছেন রেখা এবং তার এই কাজের জন্য সম্প্রতি সিআর জেনারেল ম্যানেজার ডি.কে শর্মা একটি অনুষ্ঠানে তাঁকে সম্বর্ধনাও জানান৷