নয়াদিল্লি: জ্বলছে ভারত৷ রাজনৈতিক উত্তাপ একদিকে যেমন বাড়ছে, তেমনই গ্রীষ্মের তীব্র দাবদাহে পুড়েছে গোটা দেশ৷ মধ্য ভারত ও পশ্চিম ভারতের অবস্থা সঙ্গীন৷ রীতিমত তাপপ্রবাহ চলছে এই রাজ্যগুলিতে৷ মহারাষ্ট্র, গুজরাত ও মধ্যপ্রদেশের বাসিন্দাদের রাস্তায় বেরোনো নিয়ে সতর্কতা জারি করা হয়েছে৷

তাপমাত্রার পারদ ক্রমশ চড়ছে৷ মহারাষ্ট্রের পাঁচটি শহর ও মধ্যপ্রদেশের ৩টি শহরের তাপমাত্রা বিশ্বের চরম দশটি উত্তপ্ত এলাকারর সঙ্গে পাল্লা দিচ্ছে৷ এর মধ্যে রয়েছে আকোলা, চন্দ্রপুর, ব্রক্ষ্মপুরী, অমরাবতী, ওয়ার্ধা মত মহারাষ্ট্রের পাঁচটি শহর৷ এছাড়াও উত্তরপ্রদেশের বান্দা ও মধ্যপ্রদেশের হোসাঙ্গাবাদও এই তালিকায় চলে এসেছে৷

এখনই এই সব জায়গার তাপমাত্রা ৪৫ ডিগ্রির আসে পাশে ঘোরাফেরা করছে৷ তবে সবচেয়ে খারাপ অবস্থা আকোলা ও চন্দ্রপুরের৷ সেখানে তাপমাত্রা ৪৭ ডিগ্রি৷

মৌসম ভবন জানাচ্ছে, গত বছর এই সময় তাপমাত্রা ছিল ৪৫ ডিগ্রির নীচে৷ মে মাসের মাঝামাঝি সময় তাপমাত্রা বাড়ে৷ তবে এবছর এপ্রিল থেকেই চোখ রাঙাতে শুরু করেছে সূর্য৷ ফলে মে মাসে এবছর গরম আরও বাড়বে বলেই আশংকা৷

গুজরাতের অবস্থাও তথৈবচ৷ আহমেদাবাদ, সুরাট ও ভালসাদে তাপপ্রবাহ চলছে৷ সেখানে তাপমাত্রা এখনই স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি বেশি৷ স্থানীয়দের রোদে বাইরে বেরোতে বারণ করা হয়েছে৷ বেরোলেও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা, যেমন ছাতা, সানগ্লাস ও জলের বোতল নিয়ে বেরোতে অনুরোধ করা হয়েছে৷

একদিকে যেখানে পুড়ছে পশ্চিমাঞ্চল, সেখানে বৃষ্টিতে ভাসছে তামিলনাড়ু, দক্ষিণ অন্ধ্রপ্রদেশ৷ পিছিয়ে নেই পশ্চিম বঙ্গও৷ পারদ চড়ছে দক্ষিণবঙ্গের প্রত্যেকটি জেলাতেই। হাওয়া অফিসের পারদ মাপকযন্ত্র সেই পরিমাপই দিচ্ছে। পাল্লা দিয়ে চড়ছে আসানসোল থেকে শুরু করে বাঁকুড়া থেকে শুরু করে মেদিনীপুর, মুর্শিদাবাদ তাপমাত্রা। গত তিন দিনে দক্ষিণবঙ্গের জেলায় তাপমাত্রা নীচের দিকে নামেনি। পারদ ক্রমে ঊর্ধ্বমুখীই হয়েছে।

একমাত্র শ্রীনিকেতন ঝেঁপে বৃষ্টি হয়েছে। বৃষ্টির পরিমান ৩৪.৮ মিলিমিটার। কিন্তু সর্বোচ্চ তাপমাত্রার দিকে দেখলে এই বৃষ্টিতে যে কোনও লাভ হয়নি তা স্পষ্ট হয়ে যাবে। শ্রীনিকেতনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৭.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। অন্যন্য প্রত্যেকটি জেলাতেই অস্বস্তিকর গরম অনুভূত হয়েছে।

যেমন গত ২৪ ঘণ্টায় আসানসোলের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৪১.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস, বাঁকুড়ার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪১.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস, ব্যরাকপুরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৭.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস, বহরমপুরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৭.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস, বর্ধমানের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৮.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস, কলাইকুন্ডার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৯.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

কলকাতাতেও স্বস্তির খবর নেই। অবস্থা তথৈবচ। রবিবার কলকাতার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৭.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি বেশি। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৮.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে তিন ডিগ্রি বেশি। সর্বোচ্চ আর্দ্রতা ৯০ শতাংশ, সর্বনিম্ন ৫৪ শতাংশ।