মুম্বই: জমি সংক্রান্ত সমস্যার জেরে ৬৫ বছর বয়সি বাবাকে খুন করল ছেলে। সম্প্রতি এই রকম একটি ঘটনা ঘটেছে মহারাষ্ট্রের লাতুর জেলাতে। পুলিশের তরফে শুরু হয়েছে তদন্ত। তবে এই ঘটনার জেরে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে সকলে। এমনিতেই এই মুহূর্তে করোনা মহামারীর কারণে আতঙ্কিত সবাই। তার মধ্যে এই জাতীয় ঘটনা সামনে আসাতে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন এলাকার বাসিন্দারা।

ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার। ঠিক তার পরদিন অভিযুক্ত ধনঞ্জয় মারাপাল্লে-কে গ্রেফতার করে পুলিশ৷ এমনটা জানা গিয়েছে ছাকুর পুলিশ ষ্টেশনের তরফ থেকে। এছাড়াও মৃত চন্দ্রকান্ত মারাপাল্লে ছিলেন সেখানকার পঞ্চায়েত সমিতির প্রাক্তন চেয়ারম্যান। জমি সংক্রান্ত সমস্যার কারণে বাবা চন্দ্রকান্তকে রাগের মাথাতে খুন করে পুত্র ধনঞ্জয়। মৃতের অন্য পুত্র অভিযুক্তের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছিলেন। এও জানিয়েছিলেন ধনঞ্জয়ের মদ্যপানের স্বভাব ছিল। এছাড়াও সম্পতি ভাগ করা নিয়ে প্রতিদিন পিতার সঙ্গে ঝামেলা করত। এমনকি নিজের বাবাকে হুমকিও দিয়েছিলেন ‘গুণধর’ ছেলে।

গত ১৯ জুন অভিযুক্ত ধনঞ্জয় নিজের বাবার মাথাতে টাইলস দিয়ে আঘাত করেন। আর ঘটনাস্থলেই অজ্ঞান হয়ে যান চন্দ্রকান্ত। দ্রুত তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসা চলাকালীন মারা যান। তিনি মারা যান ২০ জুন সকালে। আর তারপরেই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়। করোনা মহামারীর মধ্যে এই জাতীয় খবর সামনে আসাতে অবাক হয়েছেন সকলে। পাশপাশি পুত্রের হাতে বাবা খুন হওয়ার বিষয়টি সামনে আসাতে সাধারণ ভাবেও অবাক হয়েছেন অনেকে।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ