নয়াদিল্লি: সকাল আটটা থেকেই শুরু হয়ে গিয়েছে মহারাষ্ট্র এবং হরিয়ানা এই দুই হাইপ্রোফাইল রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা। সমীক্ষা বলছে, দুটি রাজ্যেই পাল্লা ভারী রয়েছে বিজেপি শিবিরের। শেষ পর্যন্ত কোন দল এই দুই রাজ্যের মসনদ দখল করবে শুরু হয়ে গিয়েছে তাঁর কাউন্ট ডাউন। চলছে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলগুলির মধ্যে জোর রাজনৈতিক তরজা। গোটা দেশ তাকিয়ে এখন এই দুই রাজ্যের ফলাফলের দিকে।

সোমবার সারা মহারাষ্ট্র জুড়ে ২৮৮টি নির্বাচনী আসনে ৩২,২৩৯ জন প্রার্থীর ভাগ্য নির্ধারন হতে চলেছে আজ। মহারাষ্ট্রের এই ২৮৮ আসনের মধ্যে প্রায় একগুচ্ছ ভিআইপি প্রার্থী নাগপুরের দক্ষিণপশ্চিম কেন্দ্রের থেকে ভোটে লড়েছিলেন। শুধু তাই নয়, মহারাষ্ট্রের বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী মাননীয় দেবেন্দ্র ফড়নবীশও নাগপুরের এই কেন্দ্র থেকে ভোটে দাঁড়িয়েছিলেন। বিজেপি’র জনসংঘের নেতা মাননীয় গঙ্গাধর ফড়নবীশের ছেলে হলেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়নবীশ। জানা গিয়েছে, দেবেন্দ্র ফড়নবীশের বাবা হলেন নাগপুর থেকে দাঁড়ানো মহারাষ্ট্রের ‘লেগিস্লেটিভ কাউন্সিলের’ সদস্য।

নাগপুরের এই দক্ষিণ পশ্চিম কেন্দ্র থেকে দেবেন্দ্র ফড়নবীশ দুবার সাংসদ নির্বাচিত হয়েছিলেন। ২০০৮ সালের নির্বাচনের পরে তিনি এই কেন্দ্র থেকেই বিরোধী দলের বিপক্ষে বিপুল মার্জিনে ভোটে জেতেন। মহারাষ্ট্রের নাগপুরের দক্ষিণ- পশ্চিম অংশকে নির্বাচনী ক্ষেত্রের ভিআইপি জোন বলা যেতে পারে। কারন এই কেন্দ্র থেকেই বিভিন্ন সময়ে মহারাষ্ট্রের সব হেভিয়েট প্রার্থীরা নির্বাচনে দাঁড়িয়ে থাকেন। শুধু তাই নয় মহারাষ্ট্রের নাগপুরের এই কেন্দ্র থেকে ২০১৪ সালের নির্বাচনে কনিষ্ঠ মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে নির্বাচিত হন তিনি। এবং তিনিই হলেন মহারাষ্ট্রের এখনও পর্যন্ত সব থেকে কনিষ্ঠ মুখ্যমন্ত্রী। এছাড়াও তিনি হলেন মহারাষ্ট্রের অন্যতম দ্বিতীয় ব্রাহ্মণ মুখ্যমন্ত্রী। যিনি ২০০৮ সালের নির্বাচনের পর ২০১৪ সালের নির্বাচনে বিপুল জনাদেশ পেয়ে মহারাষ্ট্রের দ্বিতীয়বারের মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে পুনরায় নির্বাচিত হয়েছিলেন।

মহারাষ্ট্রের ওরলি কেন্দ্র থেকে এবার ভোটে দাঁড়িয়েছেন আদিত্য ঠাকরে। যিনি হলেন শিবসেনা প্রধান উদ্ধব ঠাকরের পুত্র। শুধু তাই নয়, আদিত্য হলেন মহারাষ্ট্রের শিবসেনা পরিবারের প্রথম সদস্য যিনি কিনা এবার ওরলি কেন্দ্র থেকে বিধানসভা নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছিলেন।