কলকাতা: তাপস পালের মৃত্যুতে শোকপ্রকাশ করলেন বলিউডের অভিনেত্রী মাধুরী দীক্ষিত। মঙ্গলবার সকালে তাপস পালের মৃত্যুর খবর প্রকাশ্যে আসার পর ট্যুইট করেন মাধুরী।

তিনি লিখেছেন, ‘প্রথম জীবনে যাঁদের সঙ্গে কাজ করেছি, তাঁদের মধ্যে একজন তাপস পাল। তাঁর মৃত্যুতে অপূরণীয় ক্ষতি অনুভব করবেন অনেকেই।’

মাধুরী দীক্ষিতের প্রথম ছবিতে নায়ক ছিলেন তাপস পাল।

‘১৯৮৪-তে মাধুরীর বিপরীতে ‘অবোধ’ ছবিতে অভিনয় করেন তিনি। মাধুরী সেখানে সদ্য বিয়ে হওয়া এক সরল মেয়ে। আর তাপস পাল তাঁর স্বামী। বিয়ের মানেই বোঝে না মাধুরী। তাঁর চরিত্রের নাম ছিল ‘গৌরী।’ আর তাপস পাল তাঁর স্বামী ‘শঙ্কর।’

ফেব্রুয়ারির ১ তারিখ তাপস পালকে ভর্তি করা হয় মুম্বইয়ের একটি বেসরকারি হাসপাতালে। সেখানে ভেন্টিলেশনে রাখা হয় অভিনেতাকে। ৬ দিন ভ্যান্টিলেশনে কাটানোর পর কিছুটা উন্নতি হয় অভিনেতার স্বাস্থ্যের। ৬ ফেব্রুয়ারি ভেন্টিনশন থেকে আইসিইউ-তে বের করা হয় তাঁকে। তবে সোমবার রাতে ফের অসুস্থ হয়ে পড়েন তাপস। ভোর ৩টে ৩৫ মিনিটে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তাঁর মৃত্যু হয়।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.