ম্যাডোনা মানেই বিতর্ক৷সাহসী ফটোশুটে নয়ের দশকে ঝড় তোলা এই পপগায়িকার নতুন অ্যালবামের কয়েকটি গান ইন্টারনেটে ফাঁস হয়ে গেল৷গায়িকার দাবি হ্যাকারদের সাম্প্রতিকতম সেরা খাদ্য তিনিই৷কারণ এখনও পর্যন্ত ম্যাডোনা নামটাই যথেষ্ট৷ইউটিউব কিংবা লাইভ শোয়ে শত শত লাইক কিংবা লক্ষ কোটি টাকার ব্যবসায় অন্য যে কোনও তারকাকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিতে পারেন তিনিই৷বিলবোর্ডের কথা অনুসারে, ফ্যারেল উইলিয়ামসের সঙ্গে ম্যাডোনার যৌথভাবে তৈরি ১৪টি ডেমো সাউন্ড ট্র্যাক খুব তাড়াতাড়িই মুক্তি পাবে৷হয়তো ইন্টারনেটের মাধ্যমেই তা শ্রোতাদের কাছে পৌঁছে দেওয়া হবে৷ম্যাডানা এই ঘটনাকে ‘এ ফর্ম অফ টেরোরিজম’, ‘আর্টিস্টিক রেপ’ বলে আখ্যা দিয়েছেন৷এর আগেও এরকম ঘটনা একাধিকবার ঘটেছে৷হলিউডে তো আখচার ভিডিও, অডিও ফাঁস হয়েই থাকে৷শেষ বছর কেনি ওয়েস্টের ‘ইয়েজাস’ অনলাইন এভাবেই ফাঁস হয়ে গিয়েছিল৷