বারাকপুর: মাধ্যমিকের অংক পরীক্ষা চলাকালীন পরীক্ষা কেন্দ্রে অসুস্থ হয়ে পড়া পরীক্ষার্থীকে দ্রুত ব্যারাকপুর বিএন বসু মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে গিয়ে সুস্থ করে ওই হাসপাতালের আলাদা কেবিনে পরীক্ষা দেওয়ার ব্যবস্থা করল মধ্যশিক্ষা পর্ষদ।

অঙ্ক পরীক্ষা দিতে দিতেই হঠাৎ উত্তর ২৪ পরগনার পলতার শান্তি নগর হাই স্কুলে পরীক্ষা কেন্দ্রের মধ্যেই মাথা ঘুরে পড়ে সংজ্ঞাহীন হয়ে পড়েন মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী পায়েল দত্ত। সে ব্যারাকপুর জাফরপুর চড়ক তলা হাই স্কুলের এবছরের মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী।

সকালে সুস্থ শরীরে পলতার শান্তি নগর হাই স্কুলে পরীক্ষা কেন্দ্রে পরীক্ষা দিতে এসেছিল পায়েল। অঙ্ক পরীক্ষা দিতে দিতেই হঠাৎ ওই ছাত্রীর শ্বাসকষ্ট শুরু হয় । বেঞ্চে পড়ে গেলে তাকে দ্রুত নিয়ে আসা হয় ব্যারাকপুর বি এন বসু মহকুমা হাসপাতালে। সেখানে ডাক্তাররা দ্রুত সুস্থ করে তোলে ওই পরীক্ষার্থীকে। এরপর ওই হাসপাতালের কেবিনেই পায়েল দত্তর পরীক্ষা দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়।

এমনকি ওই ছাত্রীকে তার অসুস্থতার জন্য অতিরিক্ত ৩০ মিনিট সময় দেওয়া হয়। পরীক্ষা শেষে মুখে হাসি ফোটে পায়েলের।

সে বলে, “আমি ভাল পরীক্ষা দিয়েছি। প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার জন্য আমাকে অতিরিক্ত ৩০ মিনিট সময় দেওয়া হয়েছিল। পরীক্ষা ভাল হয়েছে।”

পলতা শান্তি নগর হাই স্কুলের পরীক্ষক শুক্লা দত্ত বলেন, “মধ্যশিক্ষা পর্ষদের নির্দেশে দ্রুত ওর পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হয় এই হাসপাতালে। এখানে ও অতিরিক্ত ৩০ মিনিট সময় পেয়েছিল উত্তর দেওয়ার। ওই ছাত্রী এখন ভাল আছে।”

হাসপাতালের সুপার ডা: সুদীপ্ত ভট্টাচার্য্য বলেন, “আমরা চাইছিলাম ও যাতে অঙ্ক পরীক্ষা দিতে সক্ষম হয়। অসুস্থ ওই ছাত্রীকে আমরা দ্রুত সুচিকিৎসা দিয়ে সুস্থ করে তুলতে পেরে ছিলাম। এখানে পরীক্ষা দেওয়ার সময় ওর আর কোন শারীরিক অসুস্থতা দেখা যায় নি। ছাত্রী এখন ভাল আছে ।” ওই ছাত্রীকে পরীক্ষার পর হাসপাতাল থেকে ছুটি দিয়ে দেওয়া হয়।