নোয়াপাড়া: উত্তর ২৪ পরগনার নোয়াপাড়া থানার অন্তর্গত ইছাপুর আনন্দমঠ বি ব্লকে স্টোভ বিস্ফোরন করে জখম হল এক মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী সহ ওই পরিবারের চার সদস্য। জখম ওই চার জনের নাম মা সুতপা সেন, মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী সুপ্রতিম সেন, ষষ্ঠ শ্রেণীর দুই ছাত্র শুভম সেন ও শানক সেন। জখমদের প্রত্যেককে স্থানীয় বাসিন্দারা উদ্ধার করে কলকাতার আর জি কর হাসপাতালে ভর্তি করেছে।

প্রতিবেশীদের বক্তব্য, তিনজন নাবালক সন্তান নিয়ে সুতপা সেনের সংসার। তার স্বামী বিকাশ সেন কয়েক বছর আগে অসুস্থতার কারণে মারা যায়। তারপর থেকে সুতপা দেবী বেসরকারি সংস্থায় কাজ করে তিন নাবালক সন্তানকে মানুষ করছে। সুতপা দেবীর তিন ছেলেই ভাল ফুটবল খেলে।

শুভম ও শানক সেনের শনিবার হুগলির শ্রীরামপুরে ফুটবল খেলা ছিল। সেই কারনে সুতপা দেবী সকাল সকাল স্টোভে ভাত বসিয়ে ছিল ছেলেদের জন্য। এরই মধ্যে ওই স্টোভে আগুন লেগে যায়। তখন সুতপা দেবীর ছেলেরা স্টোভের আগুন থেকে তার মা সুতপা দেবীকে বাঁচাতে গেলে গোটা বাড়ির ভেতরে আগুন ধরে যায়। তাতেই সুতপা সেন সহ তার তিন সন্তান মারাত্মক জখম হয়। প্রত্যেককে ভর্তি করা হয়েছে কলকাতার আর জি কর হাসপাতালে।

হাসপাতাল সূত্রের খবর, এই অগ্নি কাণ্ডের ঘটনায় আশঙ্কাজনক অবস্থায় রয়েছে মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী সুপ্ৰতিম সেন ও তার অপর ছোট ভাই শানক সেন। তারা ৭০ শতাংশ অগ্নিদগ্ধ হয়েছে বলে জানা গেছে। নোয়াপাড়া থানার পুলিশ গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। এই ঘটনায় শোকের ছায়া নেমেছে আনন্দমঠ বি ব্লক এলাকায়।