আর বাজার নয়! এবার বাড়িতে বসেই নিজের পছন্দের সেন্ট তৈরি করুন। না অনেক কিছুর প্রয়োজন নয়। সামান্য গোপালের পাপড়ি দিয়েই আপনি তৈরি করে ফেলতে পারবেন ডিও।

  • প্রথমে ২ কাপ জলে ১ কাপ গোলাপের পাপড়ি কুচিয়ে মেশান। তারপর গোল বাটিতে পরিষ্কার কাপড় বা ন্যাপকিন এমন ভাবে রাখুন, যাতে কাপড়ের চার কোণা বাটির চারপাশ দিয়ে বেরিয়ে থাকে। এবার বাটিতে পাপড়ি সমেত জল ঢালুন। সারারাত ঢাকা দিয়ে রাখুন। পরের দিন অন্য আর একটি পাত্রের ওপর ফুলসমেত কাপড় নিংড়ে নিন। গোলাপের সুগন্ধ ভরা এই জল কম আঁচে ফোটান। জল ঘন হয়ে প্রায় ১ চামচের মতো হয়ে এলে ঠান্ডা করে বোতলে ভরে রাখুন। ব্যাস তৈরি আপনার ঘরোয়া ডিও।
  • তবে সুগন্ধি বেছে নেওয়ার সময় খেয়াল রাখুন। কারণ গরমের সময়ে যখন আদ্রর্তা বেশি থাকে তখন হালকা লেবুর গন্ধ সমেত বা হালকা সুগন্ধির পারফিউম বেছে নিন। আসলে গরম আবহাওয়ায় পারফিউমের গন্ধ আরও তীব্র হয়ে যায়। তাই গরমে লেমন, রোজ়, ল্যাভেন্ডার বা স্যান্ডালউড পারফিউম আদর্শ। ঠান্ডার সময় ভারী গন্দের পারফিউম ব্যবহার করুন।
  • তবে গরমে ঘামের দুর্গন্ধ কমানোর জন্য স্নানের জলে কোলন মেশান। একমগ জলে ওডিকোলন মিশিয়ে স্নানের শেষে গায়ে ঢালুন। কুলিং এফেক্ট থাকবে। বেকিং সোডা ঘামের দুর্গন্ধ কমানোর জন্য খুব উপকারী। এক্ষেত্রে বেকিং সোডায় সামান্য জল মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে আন্ডারআর্মে লাগান। আপনি চাইলে এই পেস্টে লেবুর রসও মেশাতে পারেন। ১০ মিনিট লাগিয়ে রাখার পর জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এছাড়া বেকিং সোডার সঙ্গে ট্যালকম পাউডার মিশিয়ে আন্ডারআর্ম বা পায়ের তলায় লাগাতে পারেন।
  • আলুর পাতলা টুকরো এই সমস্যায় কাজ করে। স্নানের সময় আলুর স্লাইস নিয়ে সারা শরীর হালকা করে মাসাজ করুন। আবার অ্যাপেল সিডার ভিনিগারে ক তুলোর বল ভিজিয়ে বগল ও পায়ের তলায় লাগান। তাছাড়া স্নানের জলেও এই মিশ্রণ মেশাত পারেন।
  • স্নানের জলে ফিটকিরি মেশান। সঙ্গে কয়েকটা পুদিনাপাতা গুঁড়ো করে দিতে পারেন।
  • বাইরে বেরনোর সময় ২ ফোঁটা টি ট্রি অয়েলের সঙ্গে গোলাপ জল মিশিয়ে তুলোয় করে বগলে লাগান। দিনভর সতেজ থাকবেন।
  • চুলের গন্ধ কমানোর জন্যে অর্ধেক কাপ গোলাপ জল, ১ টা লেবুর রস ও ১ মগ জল একসঙ্গে মিশিয়ে স্নানের শেষে চুলে ঢালুন।