কলকাতা: হাইকোর্টে ধাক্কা খাওয়ার পর এবার নিম্ন আদালতেও খারিজ মদন মিত্রের জামিন। বৃহস্পতিবার এই মামলার শুনানি ছিল। সেখানেই জামিন খারিজ করে দেন বিচারক। আগামী মাসের ৭ তারিখ পর্যন্ত জেল হেফাজতে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।
এর আগে কলকাতা হাইকোর্ট থেকে জামিনের আবেদন প্রত্যাহার করে নেন সারদা-কাণ্ডে ধৃত পরিবহণমন্ত্রী মদন মিত্রের আইনজীবী। কলকাতা হাইকোর্ট থেকে তাঁর জামিনের আবেদন প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়। কার্যত হাইকোর্টে জামিনের আবেদনের শুনানি দেরি হওয়ার জন্যই এই সিদ্ধান্ত মদন মিত্রের আইনজীবীদের। যদিও হাইকোর্ট থেকে জামিনে আবেদন প্রত্যাহার করে নিলেও আগামী কয়েকদিনের মধ্যে নতুন করে ফের আলিপুর আদালতে জামিনের আবেদন জানাবেন আইনজীবীরা।
প্রসঙ্গত, সারদা-কাণ্ডে গ্রেফতার হন মদন মিত্র। এরপর গত মার্চ মাসে কলকাতা হাইকোর্টে জামিনের আবেদন জানান মদন মিত্র। কিন্তু দিন কেটেছে জামিনের শুনানি হয়নি। শুধুমাত্র এজলাস বদলেছে। কার্যত সেই কারণে জামিনের আবেদন প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.