মুম্বই: কপিল দেবে-র পরবর্তী ক্রিকেট অ্যাডভাইজারি কমিটি (সিএসি) গড়ে ফেলল ভারত৷ শুক্রবার নতুন সিএসি কমিটির সদস্যদের নাম ঘোষণা করল ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড (বিসিসিআই)৷

নতুন কমিটিতে রয়েছেন ১৯৮৩ বিশ্বকাপজয়ী ভারতীয় দলের অন্যতম সদস্য তথা ভারতীয় দলের প্রাক্তন কোচ মদন লাল, টিম ইন্ডিয়ার প্রাক্তন বাঁ-হাতি পেসার আরপি সিং এবং ভারতীয় মহিলা ক্রিকেটার সুক্ষ্ণণা নায়েক৷ আগামী এক বছর ক্রিকেট অ্যাডভাইজারি কমিটি এই তিন সদস্য কাজ করবেন বলে জানান বিসিসিআই সচিব জয় শাহ৷

কপিলের ’৮৩ বিশ্বকাপজয়ী দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন মদন লাল৷ দেশকে প্রথম বিশ্বকাপ এনে দেওয়ার ক্ষেত্রে তাঁর অবদানের পাশাপাশি ভারতীয় দলের কোচের ভূমিকাও পালন করেছেন ৬৮ বছরের দিল্লির এই ক্রিকেটার৷ দিল্লি থেকে ফোনে কলকাতা২৪x৭-কে মদন লাল জানান, ‘আমি এই সম্মান পেয়ে গর্বিত৷ বোর্ড আমাকে যে দায়িত্ব দিয়েছে তা আমি সম্মানের সঙ্গে করতে চাই৷’

তবে সিএসি-র নতুন গাইডলাইন সম্পর্কে এখনও অবগত নন ভারতীয় দলের প্রাক্তন কোচ তথা প্রাক্তন জাতীয় নির্বাচক৷ টিম ইন্ডিয়ার কোচ বেছে নেওয়ার পাশাপাশি এবার থেকে জাতীয় নির্বাচক কমিটির সদস্যদেরও বেছে নেবে সিএসি৷ মদন লাল, আরপি সিং-দের কমিটির প্রধান কাজ হল জাতীয় নির্বাচক কমিটির চেয়ারম্যান এমএসকে প্রসাদ এবং সদস্য গগন খোদার উত্তরসূরি বেছে নেওয়া৷

গত বছর নভেম্বরেই মেয়াদ শেষ হয়ে গিয়েছে প্রসাদ ও খোদার৷ কিন্তু তা সত্ত্বেও দায়িত্ব পালন করে চলেছেন এই দুই সদস্য৷ চলতি নিউজিল্যান্ড সফরের দলও নির্বাচন করেছে প্রসাদের নেতৃত্বাধীন নির্বাচক কমিটি৷ জাতীয় নির্বাচক পদের জন্য ইতিমধ্যেই বোর্ডের কাছে আবেদন করেছেন চেতন শর্মা, লক্ষ্ণণ শিবারামকৃষ্ণন, নয়ন মোঙ্গিয়া, অজি আগরকর এবং অ্যাবে কুরুভিল্লা৷ এঁদের মধ্যে থেকে দু’জনকে জাতীয় নির্বাচক হিসবে বেছে নেবে নতুন ক্রিকেট অ্যাডভাইজারি কমিটি৷

দেশের ৩৯টি টেস্ট এবং ৬৭টি ওয়ান ডে খেলেছেন মদন লাল৷ আর আরপি সিং খেলেছেন ১৪টি টেস্ট, ৫৮টি ওয়ান ডে এবং ১০টি আন্তর্জাতিক টি-২০ ম্যাচ৷ আর প্রাক্তন ভারতীয় মহিলা দলের সদস্য নায়েক ১১ বছরের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কেরিয়ারে খেলেছেন ২টি টেস্ট, ৪৬টি ওয়ান ডে এবং ৩১টি টি-২০৷

গত বছর অগস্টে রবি শাস্ত্রীকে দ্বিতীয়বার টিম ইন্ডিয়ার কোচ বেছে নেওয়ার পর দায়িত্ব ছাড়েন সিএসি-তিন সদস্য কপিল দেব, আংশুমান গায়কোয়াড এবং শান্তা রাঙ্গাস্বামী৷ তবে বিসিসিআই প্রথম ক্রিকেট অ্যাডভাইজারি কমিটির দায়িত্ব দিয়েছিলেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়, সচিন তেন্ডুলকর এবং ভিভিএস লক্ষ্ণণের উপর৷ সৌরভ-সচিন-লক্ষ্ণণের সিএসি প্রথমবার অনিল কুম্বলেকে টিম ইন্ডিয়ার কোচ বেছে নিয়েছিল৷ দ্বিতীয়বার এই কমিটি শাস্ত্রীর নামেই সিলমোহর দিয়েছিল৷