প্রতীকী ছবি

মেদিনীপুর:  মেছেদা লোকালের ভিতরে একটি বড় লালরঙের ট্রাভেল ব্যাগের ভেতর রক্তাত্ব অবস্থায় উদ্ধার যুবকের মৃতদেহ। মঙ্গলবার রাতে ৩৮৩১৩ আপ হাওড়া মেছেদা লোকালের ভেতর একটি বড় লালরঙের ট্রাভেল ব্যাগের ভেতরে পাকানো অবস্থায় যুবকের মৃতদেহ উদ্ধারে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। ইতিমধ্যে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে রেল পুলিশ এবং জিআরপি। এভাবে ব্যাগের মধ্যে মৃতদেহ উদ্ধারের ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে।

জানা গিয়েছে, রাত সাড়ে আটটা নাগাদ আপ মেছেদা লোকাল পৌঁছয় মেছেদাতে । এরপর ওই ট্রেনটি কিছুটা দূরে কারসেডে পৌঁছয়। রাত ১০ টা নাগাদ ট্রেনের ঝাড়ুদারেরা যখন ট্রেনটি পরিস্কার করছিলো,সেইসময় নজরে আসে ট্রেনের মধ্যে পড়ে থাকা একটি বড় লাল রংয়ের ট্রাভেল ব্যাগের। ব্যাগটিকে দেখেই প্রথমেই চমকে ওঠেন রেল কর্মীরা। এরপর ট্রাভেল ব্যাগটি খুলতেই আঁতকে ওঠে সাফাইকর্মীরা। দেখতে পাওয়া যায় ব্যাগের ভেতর মুড়েমুছড়ে রাখা একটি যুবকের দেহ। যার পরনে ছিল জামা ও ছাই কালারের প্যান্ট। আতঙ্কে রীতিমত ছোটাছুটি শুরু হয়ে যায়।

এরপরই ওই সাফাইকর্মীরা সংশ্লিষ্ট আরপিএফ এবং জিআরপিকে খবর দেওয়া হয়। ঘটনাস্থলে এসে যুবকের দেহ এবং ব্যাগটিকে উদ্ধার করা হয়েছে। জানা গিয়েছে, শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। মনে করা হচ্ছে, খুন করেই এভাবে রাতের লোকালে আততায়ীরা তা ফেলে দিয়ে গিয়েছে। রাতের ট্রেন ব্যবহার করা হয়েছে এই কারণে যে যাতে নজর এড়ানো সম্ভব হয়। কারণ ওই সময় অনেকটাই ফাঁকা হয়েছে ট্রেন।

প্রতীকি ছবি

এখনও পর্যন্ত কোন পরিচয় উদ্ধার সম্ভব হয়নি। পাঁশকুড়া জিআরপি দেহটি ময়নাতদন্তের জন্য তমলুক জেলা হাসপাতালে পাঠিয়েছে। তদন্ত শুরু করেছে রেলপুলিশ। খতিয়ে দেখা হচ্ছে স্টেশনের সিসিটিভি ক্যামেরা। বিভিন্ন স্টেশনের সিসিটিভি ক্যামেরা দেখা হচ্ছে। ওই সময় লালা রংয়ের ব্যাগ নিয়ে কারা ঢুকেছিল তা জানতেই সিসিটিভি ফুটেজ দেখা হচ্ছে। ট্রেনের মধ্যে দেহউদ্ধারের ঘটনাকে কেন্দ্রকরে রীতিমতো চাঞ্চল্য ছড়ায় মেছেদায়। তবে পাঁশকুঁড়া জিআরপি কিছুতেই মুখ খুলতে চাইনি এই বিষয়ে।