নয়াদিল্লি: ভারতীয় নৌ‌ বাহিনীর নকশা করা এবং তৈরি করা পার্সোনাল প্রোটেক্টিভ ইকুইপমেন্ট (পিপিই) এবার শংসাপত্র (সার্টিফিকেট) পেয়েছে গণহারে উৎপাদন করার। আর তা ব্যবহার করা হবে বিভিন্ন ক্লিনিকে করোনা মোকাবিলার‌ জন্য। এই পিপিই পরীক্ষা করা হয়েছে দিল্লির ইনস্টিটিউট অফ নিউক্লিয়ার মেডিসিন এন্ড অ্যাপ্লাইড সাইন্সেস ,যা একটি ডিফেন্স রিসার্চ এন্ড ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশন এবং পিপিই ‌ পরীক্ষা করে সার্টিফিকেট দিয়ে থাকে।

পিপিই-র পরীক্ষার ক্ষেত্রে একগুচ্ছ শর্ত রয়েছে যার মান ‌ ইউনিয়ন কাউন্সিল অফ মেডিকেল রিসার্চ (আইসিএমআর) এবং স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রক ঠিক করে দিয়েছে। এই পিপিই-র মূল্য অনেকটাই কম বাণিজ্যিকভাবে বাজারে কিনতে পাওয়া পাওয়া এই সরঞ্জামের তুলনায়।

ইনস্টিটিউট অফ নেভাল মেডিসিনের ইনোভেশন সেল এবং মুম্বাইয়ের নেভাল ডকইয়ার্ডের যৌথ টিম গড়া হয় এই পিপিই-র নকশা এবং উৎপাদন করতে। এই পিপিই পাস করেছে ৬/৬ সিন্থেটিক ব্লাড পেনিট্রেশন রেজিস্ট্যান্স টেস্ট প্রেসার। সরকার বাধ্যতামূলক করেছে অন্তত ৩/৬ অথবা তার বেশি লেভেল রাখতে হবে আইএসও ১৬৬০৩ স্ট্যান্ডার্ড অনুসারে।

জানানো হয়েছে, এই অসাধারণ পিপির বৈশিষ্ট্য হল সরল, উদ্ভাবনী এবং কম দাম। এটা তৈরি করা যাবে বেসিক গাউন উৎপাদনের জায়গায়। এই পিপিই-তে এমন উদ্ভাবনী ফেব্রিক ব্যবহার করা হচ্ছে যা একদিকে যেমন সহজে শ্বাস-প্রশ্বাস নেওয়া যাবে‌ অন্যদিকে পেনিট্রেশন রেজিস্ট্যান্স খুব ভালোঅর্থাৎ ব্যবহারকারীর জন্য সুরক্ষা এবং স্বাচ্ছন্দ্য উভয় মিলবে।

ইতিমধ্যে ডিআরডিও তৈরি করেছে ডাক্তারদের জন্য বায় সুট যা তাদের সাহায্য করবে করোনা ভাইরাসের সঙ্গে লড়াই করতে। এই বায়ো সুটেরও রয়েছে বিশেষ সিল বৈশিষ্ট্য। এই বিশেষ সিল ব্যবহার করা হয় সাবমেরিনে।

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV