স্টাফ রিপোর্টার, বর্ধমান: প্রেমিকাকে খুন করার পর নিজে আত্মঘাতী হল প্রেমিক। চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটেছে বর্ধমানের মন্তেশ্বর থানার সিহি গ্রামে। মৃতদের নাম রাখি দেহরী (২৪) এবং রামলাল হাঁসদা (৩৮)।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, রাখি বিবাহিত৷ তাঁর স্বামী ষষ্ঠী দেহরী মুটের কাজ করেন৷ তাঁদের এক ছেলেও রয়েছে৷ রাখির সঙ্গে রামলাল হাঁসদার অবৈধ সম্পর্ক ছিল৷ সম্প্রতি তাঁদের সম্পর্কের অবনতি হয়৷ ঘটনার দিন রোজের মতো তাঁর স্বামী ষষ্ঠী দেহরী মুটের কাজে চলে যান৷ তারপর রাখি স্থানীয় অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্র থেকে তাঁর ছেলের জন্য খিচুরি আনতে যায়৷ খিচুরি নিয়ে বাড়ি ঢোকার সময় তার সঙ্গে ঢোকে রামলাল৷ এরপর তাদের মধ্যে তীব্র বচসা বাধে৷

বচসার জেরে রাখিকে ইট দিয়ে থেঁতলে খুন করার চেষ্টা করে রামলাল। রক্তাক্ত অবস্থায় রাখি লুটিয়ে পড়লে রামলাল তার ঘরেই গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করে। স্থানীয়রা আশঙ্কাজনক অবস্থায় রাখিকে বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে যায়৷ সেখানে চিকিত্সকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ৷