হাওড়া: মাদক খাইয়ে ট্রেন যাত্রীদের বেহুঁশ করে টাকাপয়সা ও দামী জিনিসপত্র লুঠের ঘটনা হামেশাই ঘটে৷ এবার মাদক খাইয়ে রোগীর আত্মীয়দের থেকে টাকাপয়সা ও মোবাইল লুঠের ঘটনা ঘটল হাওড়ার এক সরকারি হাসপাতালে৷ চুরির ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ৷ খতিয়ে দেখা হচ্ছে সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ৷ ঘটনার জেরে হাসপাতালের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন৷

শনিবার সকালে রোগীর আত্মীয়রা ঘুম থেকে উঠে দেখেন তাদের টাকা পয়সা, দামী মোবাইল ফোন সব গায়েব৷ যাদের টাকা পয়সা লুঠ হয়েছে তাদের প্রত্যেকের আত্মীয় পরিজনরা হাওড়া জেলা হাসপাতালে ভর্তি আছেন৷ সেই কারণে হাসপাতালেই তাদের রাত্রিযাপন করতে হয়েছে৷ সেই সুযোগকে কাজে লাগিয়েছে ছিনতাইবাজের দল৷ রোগীর আত্মীয় সেজে অন্যান্যদের সঙ্গে পরিচয় জমায় তারা৷ এরপর সুযোগ বুঝে তাদের চায়ের সঙ্গে মাদক জাতীয় কিছু মিশিয়ে দেয়৷ কিছুক্ষণ পরই জ্ঞান হারান রোগীর আত্মীয়রা৷ সেই সুযোগেই হাত সাফাই করে নেয় ছিনতাইবাজের দল৷

এদিকে শনিবার সকালে খবরটি চাউর হতেই চাঞ্চল্য ছড়ায় জেলা হাসপাতালে৷ সরকারি হাসপাতালের মতো জায়গায় নিরাপত্তার ঢিলে ঢালা ব্যবস্থা নিয়ে ক্ষোভ উগরে দেন অনেকে৷ যাদের টাকা পয়সা খোয়া গিয়েছে তাদের মাথায় যেন আকাশ ভেঙে পড়েছে৷ আত্মীয়দের চিকিৎসা করাতে এসে নিজেরাই কেপমারির শিকার হয়েছেন৷ খবর পেয়েই হাসপাতালে আসে পুলিশ৷ শুরু হয়েছে তদন্ত৷ হাসপাতালের সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানান তদন্তকারী অফিসার৷