cowin

নয়া দিল্লিঃ ভারতে করোনার দ্বিতীয় তরঙ্গের ফলে আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমবর্ধমান ভাবে বেড়ে চলেছে। সংক্রমণ রুখতে কেন্দ্র সরকার বাড়িয়েছে টিকাকরণের গতি। চলতি বছরের ১ মে থেকে টিকাকরণের তালিকায় ৪৫ বছর এবং তার ঊর্ধ্ব বয়সীদের সঙ্গে ১৮ থেকে ৪৪ বছর বয়সীদের যুক্ত করা হয়েছে। তবে ভারতে অধিক জনসংখ্যার কারণে একাধিক মানুষ টিকার জন্য নাম নথিভুক্ত করতে গিয়ে ব্যর্থ হওয়ায় তার ক্ষোভ উগরে দিচ্ছে সোশ্যাল মাধ্যমে। অনেকে জানিয়েছে, টিকাকরণ কেন্দ্র (vaccine slots) দেখে বুক (Register) করতে গেলে, তা নিমেষে অন্যদের দ্বারা বুক হয়ে যাচ্ছে।

অনেক বিকাশকারী এবং সংস্থা বর্তমান মহামারী পরিস্থিতিতে টিকাকরণ কেন্দ্রগুলি (vaccine slots) সন্ধানের জন্য নানা অ্যাপ্লিকেশন চালু করেছে। এই অ্যাপ এবং ওয়েবসাইটগুলি সন্ধান দিচ্ছে কাছাকাছি থাকা টিকাকরণ কেন্দ্রগুলির। পেটিএম এবং টেলিগ্রামের মতো মাধ্যমগুলি মহামারী পরিস্থিতির কারণে মানুষের সুবিধার জন্য কাজ করে চলেছে।

অন্যদিকে সরকারও মহামারী পরিস্থিতিতে টিকাকরণ কেন্দ্রগুলি (vaccine slots) সন্ধানের জন্য ‘মাই গভার্নমেন্ট করোনা হেল্পডেস্ক’ (My Government Corona Helpdesk) নামে একটি চ্যাটবোটও (chatbot) স্থাপন করেছে। তবে এখানে মানুষ শুধুমাত্র টিকাকরণ কেন্দ্রের (vaccine slots) সন্ধান পাবে, নাম নথিভুক্তির জন্য তাদের ব্যবহার করতে হবে কো-উইন পোর্টাল।

বিকাশকারীদের তরফে কোভিডের টিকার জন্য সহজে কী ভাবে কো-উইন (CoWIN portal) পোর্টালে নাম নথিভুক্ত করা যাবে তার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। প্রথমত টিকার জন্য নাম নথিভুক্ত করতে সরকারের চালু করা কো-উইন পোর্টালে নিজের নাম, ফোন নম্বর এবং প্রয়োজনীয় নথিপত্র দিয়ে রেজিস্টার (Register) করাতে হবে। রেজিস্ট্রেশনের প্রমাণীকরণের জন্য রেজিস্টার (Register) করা ফোন নম্বরে পোর্টালের তরফে একটি ওটিপি পাঠানো হবে।

অনেকে সারাদিন এলোমেলোভাবে টিকার স্লটের (vaccine slots) জন্য ঘুরে বেড়াচ্ছে। তবে এর পরিবর্তে মানুষ প্রতিদিন সন্ধ্যে ৬ টা থেকে রাত ১১ টার মধ্যে কো-উইনে টিকার স্লট খুঁজতে পারে বাড়ি বসে। তার কারণ এই সময়ের মধ্যে টিকার স্লট যুক্ত হয় পোর্টালে।

কো-উইন (CoWIN portal) পোর্টালে টিকার স্লটগুলি (vaccine slots) প্রদর্শিত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে সময় নষ্ট না করে অ্যাপয়েন্টমেন্ট (appointment) বুকিংয়ে পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। তার কারন হাজার হাজার মানুষ টিকার স্লট বুক করার জন্য মুখিয়ে থাকায় নিমেষে তা পূরণ হয়ে যায়।

কো-উইন (CoWIN portal) পোর্টালে দুটি উপায়ে স্লট (vaccine slots) অনুসন্ধান করা যায়, একটি স্থানীয় পিনকোড এবং একটি জেলা বা রাজ্যের নাম দিয়ে। পিন কোড প্রদান করলে কাছাকাছি থাকা টিকাকেন্দ্রগুলি পোর্টাল দেখিয়ে থাকে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.