ঢাকা: রমজান চলছে৷ আসছে ঈদ উল ফিতর৷ উৎসবে ঘরে ফিরতে চেয়ে প্রতিবারের মতো এবারেও যাত্রীরা মুখিয়ে৷ বিশেষ করে রাজধানী ঢাকা থেকে দূরবর্তী এলাকায় যাওয়ার জন্য সবথেকে বড় লাইন পড়তে শুরু করেছে৷ শুক্রবার থেকেই বাসের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে। সর্বত্র বিভিন্ন বাস কাউন্টারে দেয়া হচ্ছে অগ্রিম টিকিট। ভোররাত থেকেই অনেকে লাইনে দাঁড়িয়ে ৩০ মের টিকিটের জন্য অপেক্ষা করছেন।

বাংলাদেশ বাস-ট্রাক ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান রমেশ চন্দ্র ঘোষ বলেন, আমরা টিকিট বিক্রি মনিটরিং করছি। কেউ যেন নির্ধারিত ভাড়ার বেশি নিতে না পারে সেজন্য দূরত্ব অনুযায়ী ভাড়ার চার্ট টাঙিয়ে দিতে বলা হয়েছে। এরপরও কেউ নির্ধারিত ভাড়ার বেশি নিচ্ছে প্রমাণ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এদিকে প্রবল গরম৷ তারই মাঝে কাঙ্খিত একটি টিকিট পেতে ঢাকার বিভিন্ন স্থানে বেসরকারি বাস পরিবহণ সংস্থার কাউন্টারে শুরু হয়েছে দীর্ঘ অপেক্ষা৷ রোজা পালন করছেন যারা, তাদের কষ্ট আরও বেশি৷ ক্রমে বাড়তে শুরু করেছে লাইন৷ প্রতি ঈদে এটা চেনা ছবি বাংলাদেশের৷ শুধু ঢাকা নয়, চট্টগ্রাম, রংপুর, সিলেট, ময়মনসিংহ, খুলনা, যশোর সর্বত্র একই ছবি৷ সবাই বাড়ি ফিরতে চান৷

ঢাকার কল্যাণপুর, শ্যামলী, গাবতলী, মহাখালী ও আসাদগেট বাস কাউন্টার থেকে বিক্রি শুরু হয়েছে অগ্রিম টিকিট।একই সঙ্গে অনলাইন অ্যাপের মাধ্যমেও বাস টিকিট ছাড়া হয়েছে। তবে ৩০ মে ও ৩ জুনের টিকিটের চাহিদা বেশি। এবার ঈদে দীর্ঘ ছুটি থাকায় ৩০ মে থেকে যাত্রীরা বাড়ি যেতে শুরু করবেন বলে মনে করা হচ্ছে৷ ৩১ মে শুক্রবার ও ১ জুন শনিবার পড়ায় অনেকেই আগে ভাগে ছুটি নিয়ে বাড়ি চলে যাবেন। ৪ জুন থেকে তিন দিন ঈদের ছুটি থাকার কথা রয়েছে।