কলকাতাঃ  বিজেপি নেত্রী লকেট চট্টোপাধ্যায়ের নিরাপত্তা বাড়াল প্রশাসন। বাড়ি ভাঙচুরের পর নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছিলেন হুগলি লোকসভা কেন্দ্রের এই বিজেপি প্রার্থী। প্রশাসনের কাছে নিরাপত্তা আবেদন জানান লকেট। আর এরপরেই তাঁর বাড়তি নিরাপত্তার ব্যবস্থা করল প্রশাসন। ঘটনার পরেই লকেটের জন্য দু’জন নিরাপত্তারক্ষী নিয়োগ করে হুগলি গ্রামীণ ও চুঁচুড়া কমিশনারেটের পুলিশ। যেহেতু লকেটের নির্বাচনী কেন্দ্র চুঁচুড়া কমিশনারেট ও গ্রামীণ, দু’টি এলাকাতেই ছড়িয়ে, সে কারণে দুই পুলিশের তরফে দু’জন রক্ষী দেওয়া হয়েছে লকেটকে।

অন্যদিকে, হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। চুঁচুড়া থানার তদন্তকারী অফিসার জানিয়েছেন, অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু হয়েছে। বেশ কিছু সূত্র হাতে এসেছে। দোষীদের দ্রুত গ্রেফতার করা হবে।

যদিও ঘটনার পরেও নিজের লোকসভা কেন্দ্রে প্রচার থামাননি লকেট চট্টোপাধ্যায়। একাধিক জায়গায় গিয়ে প্রচার সারছেন। তিনি জানিয়েছেন, ‘আমি জিতব বলেই তৃণমূল পরিকল্পিত ভাবে আমার বাড়িতে হামলা চালিয়েছে।’ যদিও লকেটের বাড়ি ভাঙচুরের ঘটনায় তৃণমূল কোনও ভাবেই জড়িত নয় বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন চুঁচুড়ার বিধায়ক অসিত মজুমদার। তিনি বলেন, ‘পুলিশ অভিযুক্তদের গ্রেফতার করলেই পরিষ্কার হয়ে যাবে হামলা কে করেছে।’