স্টাফ রিপোর্টার, মালদহ: রাজ্যে বিজেপির রথযাত্রা নিয়ে এবার হুঙ্কার বিজেপি নেত্রী লকেট চট্টোপাধ্যায়ের৷ আগামী লোকসভা ভোটকে সামনে রেখে বিজেপির গণতন্ত্র বাঁচাও রথযাত্রার সামনে কেউ দাঁড়াতে পারবে না বলে এদিন হুঁশিয়ারি দেন তিনি৷

এদিন লকেট চট্টোপাধ্যায় হুঁশিয়ারি দেন “রথযাত্রা যে আটকাতে চাইবে, তাঁকে সেই রথের তলাতেই পিষে মারা হবে”৷ তিনি আরও বলেন, “বিগত নির্বাচন গুলিতে বাংলার শাসকদল যে ভাবে গণতন্ত্রকে ধ্বংস করে সন্ত্রাস করেছে ও প্রতিনিয়ত মহিলাদের ওপর অত্যাচার হচ্ছে তার বিরুদ্ধে এই রথযাত্রা। কোচবিহার থেকে রথযাত্রা মালদহ দিয়ে যাবে। ফলে সেই যাত্রায় মহিলা মোর্চা কিভাবে কাজ করবে, সেই দিক নির্দেশনা দিতেই তাঁর এই মালদহ সফর৷ আর এই রথযাত্রাকে কেউ যদি আটকাতে আসে তাহলে রথের চাকায় পিষে দেওয়া হবে।”

এদিন মালদা বিজেপি কার্যালয়ে একথা বলেন এই বিজেপি নেত্রী৷ এদিন কার্যালয়ে লকেট চট্টোপাধ্যায় ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বিজেপি মহিলা মোর্চার সদস্যরা। মূলত বিজেপির রথযাত্রা উপলক্ষে মহিলা মোর্চার কর্মসুচিতে যোগ দিতেই তাঁর এই জেলা সফর বলে জানি গিয়েছে৷

অন্যদিকে, এদিনই লোকসভা নির্বাচনের আগে জেলায় তৃণমূলের সঙ্গে জোটে যেতে চায় কংগ্রেস বলে জানিয়েছিলেন দক্ষিণ মালদহের সাংসদ আবু হাসেম খান চৌধুরী৷ আগামী লোকসভা ভোটে বিজেপিকে ঠেকাতে তৃণমূলই একমাত্র হাতিয়ার বলে সওয়াল করেন তিনি৷

আরও পড়ুন : মোদী-মমতা জমানায় RSS-এর ‘আচ্ছে দিন’ বাংলায়

কংগ্রেসের এই জোটভাবনাকেও এদিন কটাক্ষ করেন লকেট৷ তিনি বলেন “কংগ্রেস এখন বিজেপি আতঙ্কে ভুগছে৷ তাই তৃণমূল বা সিপিএম কারোর সঙ্গে জোট করেই বিজেপিকে আটকানো যাবে না৷ এমনকী বিজেপির জয়যাত্রাকে আটকানোর ক্ষমতা শাসক দল তৃণমূলেরও নেই” বলে দাবি করেছেন এই বিজেপি নেত্রী৷

তবে লকেট চট্টোপাধ্যায়ের বক্তব্যের পালটা প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন জেলা তৃণমূল সভানেত্রী চৈতালি ঘোষ সরকার৷ তিনি বলেন জেলাতে বিজেপি বিভিন্ন উস্কানিমূলক কর্মসূচী করে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বাতাবরণ নষ্ট করতে চাইছে৷ মানুষ একে ভাল ভাবে নেবে না৷ মানুষই এর যোগ্য জবাব দেবে৷ তৃণমূল কংগ্রেস অশান্তির রাজনীতি করে না৷ কিন্তু বিজেপি রাজ্যে অশান্তির পরিবেশ সৃষ্টি করতে চাইছে৷

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ