তিমিরকান্তি পতি, বাঁকুড়া: মারণ ভাইরাস ‘করোনা’ আতঙ্কে ভূগছে সারাদেশ। অতি সতর্কতা হিসেবে কেন্দ্র ও রাজ্যের তরফে সর্বত্র ‘লকডাউন’ ঘোষণা করা হয়েছে। প্রশাসনিক নির্দেশে অত্যাবশ্যকীয় পরিষেবা ছাড়া বাকি সব দোকানপাট বন্ধ।

ফলে চরম সমস্যায় পড়ছেন বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি থাকা রোগীদের আত্মীয় পরিজনরা। এক প্রকার না-খেয়েই হাসপাতাল চত্বরে দিন কাটাতে হচ্ছে তাঁদের।

এই অবস্থায় এই সব মানুষের পাশে এসে দাঁড়ালো বাঁকুড়া জেলা তৃণমূল। শনিবার দলের পক্ষ থেকে হাসপাতাল চত্বরে দিন কাটানো প্রায় ৪০০ রোগীর আত্মীয় পরিজনদের হাতে খাবার তুলে দেওয়া হলো। উপস্থিত ছিলেন তৃণমূল নেতা ও বাঁকুড়া জেলা পরিষদের ‘মেন্টর’ অরুপ চক্রবর্তী এবং পুরপ্রধান মহাপ্রসাদ সেনগুপ্ত প্রমুখ।

তালডাংরার হাড়মাসড়া এলাকা থেকে আসা তপন দুলে বলেন, জ্যেঠিমা হাসপাতালে ভর্তি আছেন। কোনও খাবারের দোকান খোলা নেই। ভীষণ সমস্যায় পড়ছিলাম। এই অবস্থায় খাবার পেয়ে খুব খুশি বলেই জানিয়েছেন তিনি।

অন্যদিকে, কেঞ্জাকুড়া থেকে বৌমাকে নিয়ে হাসপাতালে আসা পারুল বাউরি বলেন, খাবার না-পেয়ে ভীষণ সমস্যায় ছিলাম। এদিন খাবার পেয়ে আপাতত সেই সমস্যা কিছুটা হলেও মিটলো বলে তিনি জানান।

তৃণমূলের তরফে দেবদাস দাস বলেন, এই অবস্থায় হাসপাতালের সাধারণ ওয়ার্ডে ভর্তি থাকা রোগীর আত্মীয় পরিজনদের এক প্রকার না খেয়েই দিন কাটছিল। আপাতত ৪০০ জনের খাওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে। প্রয়োজনে আরও খাবার আনা হবে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত তারা এই কর্মসূচী চালিয়ে যাবেন বলে তিনি জানান।