কলকাতা: কেন্দ্রের ঘোষণার পর রাজ্যেও বাড়ানো হল লকডাউন। শনিবার নবান্নের তরফে জারি করা হল নির্দেশিকা। আগামী ১৫ জুন পর্যন্ত রাজ্য জুড়ে বাড়ানো হল লকডাউনের মেয়াদ।

কনটেনমেন্ট জোনগুলিতে লকডাউন জারি থাকবে ১৫ জুন পর্যন্ত। তবে অন্যান্য জোনে নিয়ম শিথিল করা হবে বলে জানানো হয়েছে।

শুক্রবার ইসাংবাদিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দেন, ১ জুন থেকে রাজ্য অনেকটাই স্বাভাবিক ছন্দে হাঁটবে। ওই দিন থেকেই রাজ্যের সমস্ত চা এবং জুট শিল্প খুলে যাচ্ছে বলেই ঘোষণা করেন তিনি।

পাশাপাশি আগামী ১০ জুন থেকে রাজ্যের সমস্ত অফিস পুরোদমে খুলে যাবে বলেও ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী। ওদিকে ১ জুন সকাল ১০ টা থেকেই রাজ্যের সমস্ত মন্দির-মসজিদ-গির্জা খোলার অনুমতি দেওয়া হবে বলেও ঘোষণা করেন তিনি। তবে কোনও ধর্মস্থানেই একসঙ্গে ১০ জনের বেশি মানুষ সেখানে ঢুকতে পারবেন না বলেও পরিষ্কার নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী।

এদিকে, পয়লা জুন থেকে দেশব্যাপী লাগু হবে লকডাউন ৫ (Lockdown 5.0)। শনিবার সেই ঘোষণা করে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। পঞ্চম দফার এই লকডাউনে একাধিক বিধি শিথিল করেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক।

জানা গিয়েছে, মানুষ ও পণ্য পরিবহণে আন্তঃরাজ্য ও আন্তঃজেলা যাতায়াতে কোনও নিষেধাজ্ঞা থাকবে না। ই-পাস ছাড়াই করা যাবে যাতায়াত। এদিন সন্ধ্যায় জারি করা গাইডলাইনে উল্লেখ করেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক।

পাশাপাশি পয়লা জুন থেকেই খোলা যাবে ধর্মীয় স্থান। তবে ৮ জুন থেকে হোটেল, রেস্তোরাঁ, শপিং মল আর অতিথি আপ্যায়ন কেন্দ্রগুলো চালু করা যাবে। স্পষ্ট করা হয়েছে শনিবার জারি করা লকডাউনে। এই প্রসঙ্গে উল্লেখ্য, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের গাইডলাইনে স্পষ্ট উল্লেখ, পঞ্চম দফার লকডাউন আদতে আনলক করার পদ্ধতি। ধাপে ধাপে সবকিছু স্বাভাবিক করতে এরপর সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প