কলকাতা: ৫ অগস্ট বুধবার রাজ্য জুড়ে ছিল সম্পূর্ণ লকডাউন৷ এটা অগস্টের সাপ্তাহিক লকডাউনের প্রথম দিন৷ লকডাউন অমান্য করায় কলকাতা পুলিশের হাতে গ্রেফতার প্রায় ৮০০ এর বেশি৷ বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে অনেক গাড়ি৷

লকডাউনে সকাল থেকেই কলকাতার বিভিন্ন রাস্তায় কলকাতা পুলিশের কড়া নজরদারি ছিল৷ গাড়ি থামিয়ে চলছিল চেকিং৷ কলকাতার গুরুত্বপূর্ণ রাস্তায় মোতায়েন ছিল বিশাল পুলিশবাহিনী৷ এমনকি ছোট ছোট গলিতেও চলে নজরদারি৷

লালবাজার সূত্রে খবর, অগস্টের সাপ্তাহিক লকডাউনের প্রথম দিনে লকডাউন অমান্য করায় কলকাতা পুলিশ ৮৫১ জনের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নিয়েছে৷ এদের মধ্যে লকডাউন অমান্য করায় ৫৬১ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে৷ বিনা মাস্কে বের হওয়ার জন্য ২৭১ জন ও যত্রতত্র থুতু ফেলার জন্য ১৯ জনের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে৷ এছাড়া ২০ টি গাড়ি বাজেয়াপ্ত করেছে কলকাতা পুলিশ৷

বুধবার দুপুর ১২ টা পর্যন্ত লকডাউন অমান্য করায় কলকাতা পুলিশ ২৭৪ জনকে গ্রেফতার করে৷ বিনা মাস্কে বের হওয়ার জন্য ১৮৯ জন ও যত্রতত্র থুতু ফেলার জন্য ১২ জনের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হয়৷ এছাড়া ৬ টি গাড়ি বাজেয়াপ্ত করে কলকাতা পুলিশ৷

লকডাউনে কলকাতার পাশাপাশি বিধাননগর পুলিশ কমিশনারেট এলাকায়ও ছিল পুলিশের কড়া নজরদারি।পুলিশ সূত্রে খবর, বিধাননগর পুলিশ কমিশনারেট এলাকায় ৫৬ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। লকডাউন অমান্য করায় তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নিয়েছে পুলিশ৷ এছাড়া ৮ টি গাড়ি বাজেয়াপ্ত করেছে পুলিশ৷

লকডাউনে শুনশান ছিল কলকাতার রাস্তা৷ যারা গাড়ি নিয়ে বেরিয়েছিলেন তাদের গাড়ি থামিয়ে চলে নথি পরীক্ষা৷ কেন বের হয়েছেন তার কারণ জানতে চাওয়া হয়৷ সঠিক কারণ দেখাতে না পারায় অনেককে বাড়ি ফিরত পাঠিয়ে দেওয়া হয়৷ লালবাজার থেকেও সিসি ক্যামেরাতে নজর রেখেছিল পুলিশ৷ তবে লকডাউনে জরুরী পরিষেবায় ছাড় দেওয়া হয়৷

সংক্রমণ রুখতে তৎপর কলকাতা পুলিশ,শুধু লকডাউনের দিনগুলোতেই নয়, প্রতিদিনই চলছে ধরপাকড়৷ আনলক শুরু হওয়ার পর গ্রেফতারের ক্ষেত্রে কিছুটা শিথিলতা দেখিয়েছিল পুলিশ৷ কিন্তু কলকাতায় সংক্রমণ বাড়তেই ফের সক্রিয় পুলিশ৷ রাজ্যে সাপ্তাহিক লকডাউন কড়া হাতে সফল করছে প্রশাসন৷

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা