হাওড়া: পুরসভার টাইম কলের জলে মিলছে কেচো, বিছে সহ পোকামাকড়। ৩৯ নং ওয়ার্ডের নস্করপাড়ার ঘটনা। পুরসভার বিরুদ্ধে উদাসীনতার অভিযোগ স্থানীয় বাসিন্দাদের। পরিশ্রত পানীয় জলের নামে অপরিশোধিত জল সরবরাহ করছে হাওড়া পুরসভা। এমনই অভিযোগে সরব হয়েছেন হাওড়া পুরসভা এলাকার ৩৯নং ওয়ার্ডের নস্করপাড়ার বাসিন্দারা।

গত কয়েকদিন ধরে বিভিন্ন বাড়িতে যে জল সরবরাহ করা হচ্ছে তা ব্যাবহারের অযোগ্য বলে অভিযোগ উঠেছে। কেন্নো, কেচো, বিছে জোঁক সহ পোকামাকড় প্রায়শই চলে আসছে টাইম কলের জলের সঙ্গে। বাসিন্দারা কলের মুখে ছাঁকনি লাগিয়ে কোনওরকমে সেই জল শৌচালয় ও স্নানের কাজে ব্যবহার করতে বাধ্য হচ্ছেন। এলাকায় পানীয় জলের বিকল্প ব্যবস্থাও নেই। যে কারণে চরম সমস্যায় পড়েছেন স্থানীয় মানুষ। এনিয়ে পুরসভার তরফ থেকে ওই এলাকায় টিম পাঠানো হচ্ছে বলে কমিশনার জানিয়েছেন।

স্থানীয় মানুষের অভিযোগ, নজরদারি না থাকার কারণে পুরসভার উদাসীনতায় পানীয় জলের পাইপ লাইনের সঙ্গে কোনওভাবে মিশছে নর্দমার নোংরা জল। যে কারণেই এই সমস্যা। স্থানীয় বাসিন্দা কৃষ্ণা খাঁ বলেন, “জল থেকে জোঁক বেরিয়েছে প্রায় আট-ন’টার মতো। রোজ বিছে, কেন্নো পদ্মপুকুরের টাইম কলের জল দিয়ে বেরোচ্ছে। পাঁক পচা ঘোলা জল বেরচ্ছে। যেটা আমাদের খেতে হচ্ছে। আরো দু তিনটে বাড়ি থেকেই বেরিয়েছে। পুরসভা কোনও নজর দিচ্ছে না। আমরা পুরসভাকে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানাচ্ছি।”

এদিকে, পুর-কমিশনার বিজিন কৃষ্ণা বলেন, এই অভিযোগ নতুন এলাকায় হয়েছে। বি গার্ডেনের দিকে এর আগে এরকম অভিযোগ ছিল না। আমরা সেখানে পুরসভার টিম পাঠাচ্ছি। খবর নিয়ে দেখছি।