স্টাফ রিপোর্টার , হাওড়া : করোনা মোকাবিলায় দেশজুড়ে চলছে দীর্ঘ ২১ দিনের লকডাউন। সাধারণ মানুষকে খাদ্য সরবরাহ করতে লকডাউনের মধ্যেও চালু রয়েছে কাঁচা সব্জি-মাছের বাজার।এর ফলে স্বভাবতই বাজারে ভিড় জমাচ্ছেন বহু মানুষ।যার থেকে করোনা সংক্রমণের আশঙ্কা থেকেই যাচ্ছে। এই সমস্যা দূর করে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে বাজার সচল রাখার বিভিন্ন ব্যবস্থা নিয়েছে প্রশাসন।

যার অন্যতম উদাহরণ গ্রামীণ হাওড়ার আমতা-২ ব্লকের ভাটোরা শিবতলা বাজার।ঘনবসতি সরু এলাকায় নিয়মিত বাজার বসে।ভিড় জমান আশপাশের বেশ কয়েকটি গ্রামের বহু ক্রেতা-বিক্রেতা।তাই সেই সমস্যা দূর করে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে বাজারকে সচল রাখতে পার্শ্ববর্তী ভাটোরা ফুটবল ময়দানে স্থানান্তরিত করল আমতা-২ ব্লক প্রশাসন।উল্লেখ্য,রূপনারায়ণ পেরিয়ে এই বাজারে সব্জির পসরা সাজিয়ে হাজির হন পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার দাসপুর থানার গোপীগঞ্জের ব্যবসায়ীরা।প্রথমে ফেরি সার্ভিস বন্ধ করা হলেও বাজার সচল রাখতে গতকাল থেকে এই সমস্ত ব্যবসায়ীদের জন্য বিশেষ ফেরি পরিষেবার ব্যবস্থা করা হয়।দ্বীপাঞ্চলের ফুটবল মাঠে বসা এই বাজারেও বিশেষ সুরক্ষা রেখার ব্যবস্থা করা হয়েছে।এর পাশাপাশি,ফেরি সার্ভিস ও বাজারকে সুরক্ষিত রাখতে নিয়মিত নজর রাখছেন স্থানীয় পঞ্চায়েত সমিতির কর্মাধ্যক্ষ জলধর চক্রবর্তী।

চলছে মাইক প্রচার।ব্লকের করোনা বিষয়ক টাস্ক ফোর্সের প্রধান তথা পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি সুকান্ত কুমার পাল বলেন,”মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে আমরা বাজারকে সচল রেখে স্থানীয় মানুষকে পরিষেবা দিতে সবসময় প্রস্তুত।তাই ব্লক প্রশাসনের পক্ষ থেকে এই উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।”