স্টাফ রিপোর্টার, মেদিনীপুর: বিজেপির পালটা সভা তৃণমূল কংগ্রেসের৷ গত ১৬ জুলাই মেদিনীপুরের কলেজ কলেজিয়েট মাঠে বিজেপির সভায় প্রধান বক্তা ছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী৷ শনিবার তৃণমূলের সভার প্রধান বক্তা যুব তৃণমূলের সর্বভারতীয় সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়৷

আরও পড়ুন: বাংলায় ফের খুন মোদীর দলের কর্মী

‘২০১৯, বিজেপি ফিনিশ৷ ২০১৮-তে প্যান্ডেল ভেঙেছে৷ ২০১৯ সালে বিজেপি ভাঙবে৷’

‘আমাদের দলেও রামভক্ত আছে৷ তাঁরা সম্প্রীতির পক্ষে থাকে৷ বিজেপির রামভক্তরা মাথায় ফেট্টি বেঁধে হিংসা ছড়াচ্ছে৷’

‘আমরা সিপিএমের মতো নাস্তিক নই৷’

‘বিজেপি হিন্দুদের নিয়ে রাজনীতি করে৷ দুর্নীতি করে৷ বিজেপি হিন্দুদের জন্য কিছু করেনি৷’

আরও পড়ুন: পেট্রলের বদলে জল দিল পাম্প, হুলস্থুল কান্দিতে

‘রাজ্যে সাম্প্রদায়িক হিংসা ছড়ানোর চেষ্টা করছে বিজেপি৷’

‘বাংলাকে অশান্ত করতে পারবে না৷’

‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যে উন্নয়ন ও শান্তি ফেরানোর সিন্ডিকেট করেছে৷’

‘বাইরে থেকে লোক এনে অশান্তি ছড়ানোর চেষ্টা করেছে৷’

আরও পড়ুন: স্মার্টফোনে চমক! বিশ্বে প্রথমবার ৪৮ এমপি ক্যামেরা সেন্সর

‘ওডিশা, ঝাড়খণ্ড, উত্তরপ্রদেশ, অরুণাচল প্রদেশ থেকে গাড়ি আনা হয়েছিল৷’

‘সভার নাম কৃষক কল্যাণ সমাবেশ৷ অথচ মাঠে কোনও কৃষক ছিল না৷’

‘দিল্লি থেকে বিজেপিকে উৎখাত করার শপথ নিচ্ছি এই সভা থেকে৷’

‘কোটি কোটি টাকা খরচ করে যাঁরা প্যান্ডেল বাঁধতে পারেন না, তাঁরা আবার বাংলা দখলের হুংকার দিচ্ছে৷’

আরও পড়ুন: ধূমপান করতে করতে হরলিক্স-এ চুমুক